শুক্রবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৮ ০২:৫৭:০২ পিএম

বিশ্বকাপে কোন দলের আক্রমণ সেরা?

খেলাধুলা | রবিবার, ১ এপ্রিল ২০১৮ | ০২:৩১:১৬ পিএম

ফুটবল জ্বরে কাঁপছে এখন পুরো বিশ্ব। হিসাব নিকাশ শুরু হয়ে গেছে কোন বিভিন্ন দলের। বিশ্বকাপে ফেভারিট দল গুলোর শক্তি দুর্বলতা নিয়ে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। এরমধ্যে চলুন আমরা জেনে আসি বিশ্বকাপে ফেভারিট দল গুলোর মধ্যে কোন দলের আক্রমণ ভাগ সেরা।

এবারের বিশ্বকাপে সবচেয়ে ফেভারিট দল হিসেবে আছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানী, পাঁচ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল, সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স, আর্জেন্টিনা, স্পেন। এই পাঁচটি দলকেই সবচেয়ে ফেভারিট হিসেবে ধরা হচ্ছে। তবে চলুন একটু খুঁজে দেখি পাঁচটি দলের আক্রমণ ভাগের গভীরত্ব কতটুকু। বিশ্বকাপে কোন দলের আক্রমণ সেরা?

১. জার্মানী: ফুটবলের পাওয়ার হাউস বলা হয় জার্মানীকে। ইউরোপের এই দলটিই বর্তমান চ্যাম্পিয়ন এবং একই সাথে সামনেই রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া বিশ্বকাপেও সবচেয়ে ফেভারিট। আর ফেভারিটের তকমা লাগানো জার্মান দুর্গের আক্রমণ ভাগে আছে মারিও গোমেজ, লিরয় সানে, টিমো ওয়ার্নার ও ওয়াগনারের মত তারকা। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে খেলা লিরয় সানে ম্যানসিটির সেরা তারকাদের একজন।

দুর্দান্ত গতিসম্পন্ন এই তারকা যেকোনো ডিফেন্ডারের জন্য মাথা ব্যথার কারণ। অন্যদিকে টিমো ওয়ার্নার আগামী মৌসুমেই দেখা যেতে পারে বায়ার্নের জার্সিতে। দুর্দান্ত খেলার কারণেই তার উপর নজর আছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দল গুলোরও। এছাড়াও ওয়াগনার নিজেকে প্রমাণ করেছে ইতিপূর্বেই। আর মারিও গোমেজ পরীক্ষিত সৈনিক। এছাড়াও গোৎজে, টনি ক্রুশ, মেসুট ওজিলের তারকা আছে জার্মান দলে। তাই কোন সন্দেহ ছাড়াই তাদের আক্রমন ভাগ দুর্দান্ত।

২. ব্রাজিল: দুঙ্গার পর টিটে দায়িত্বে আসার পর পুরো চেহারাই পাল্টে গেছে ব্রাজিলের। আর বদলে যাওয়া ব্রাজিলের আক্রমন ভাগও এখন যেকোনো দলের চাইতে সমৃদ্ধ। বর্তমান বিশ্বের তৃতীয় সেরা তারকা নেইমার আছেন দলটিতে। সাথে আছে রোনালদোর পর সেরা ফলস নাইন গ্যাব্রিয়েল জেসুস। লিভারপুলের অন্যতম সেরা তারকা রবার্তো ফিরমিনোর সাথে আছে চেলসির উইলিয়ান। তাদের সাথে আছে জুভেন্টাসের ডগলাস কস্তা, বার্সালোনার ফিলিপ কৌতিনহো।
কিন্তু মজার ব্যাপার হল ব্রাজিলের গোলস্কোরার যেকোন দলের চাইতে বেশি যা দলটির জন্য সবচেয়ে পজিটিভ দিক।

৩. ফ্রান্স: বর্তমান বিশ্বের দ্বিতীয় সবচেয়ে দামী তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে আছেন এই দলে। এছাড়াও আছে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ তারকা ও বার্সালোনার টার্গেট অ্যান্তনিও গ্রীজম্যান। যেকোন সময় খেলার গতি পাল্টে দেয়ার জন্য রয়েছে ওসমানে ডেম্বেলে ও পল পগবার মত তারকারা। এছাড়াও চেলসিতে খেলা দলটির মুল ফরোয়ার্ড অলিভার জিরদ কিংবা ট্রান্সফার বাজারে হট কেকে পরিণত হওয়া থমাস লিমাদের নিয়ে গড়া ফরাসি আক্রমন ভাগ যেকোন দলের জন্যই হতে পারে মাথা ব্যাথার কারন।

৪. আর্জেন্টিনা: আর্জেন্টিনার আক্রমন ভাগের তারকারা নিজ নিজ ক্লাবে সবাই দুর্দান্ত। ম্যানসিটির সেরা ফরোয়ার্ড সার্জিও অ্যাগুয়েরু। ইন্টার মিলানের সেরা ফরোয়ার্ড ইকার্দি। জুভেন্টাসের সেরা দুই ফরোয়ার্ড দিবালা ও হিগুইন। পিএসজির অন্যতম সেরা উইঙ্গার ডি মারিয়া। কিন্তু অদৃশ্য কারনে এরা যখন জাতীয় দলে আসে তখনই যেন নিজেদের সেরা খেলা ক্লাবে রেখে আসে।

সর্বশেষ প্রীতি ম্যাচেতো ইকার্দি ও দিবালাকে ছাড়াই দল ঘোষনা করেছিলেন আর্জেন্টিনা কোচ। এরপর ইতালির বিপক্ষে ম্যাচে জিতলেও স্পেনের বিপক্ষে সেরা মিস করেছিলেন হিগুইন। গোলরক্ষককে একা পেয়েও কিভাবে যেন বল মারলেন বাইরে। আর এসবের ভীরে শেষ পর্যন্ত দায়িত্ব গিয়ে পরে সেই মেসির কাছেই।

এই মেসির কল্যানেই আর্জেন্টিনা বিশ্ব্কাপে অংশগ্রহন নিশ্চিত করেছে। অনেক বার জাতীয় দলকে টেনে তোলার নজির দেখিয়েছেন এই বার্সালোনা তারকা। পুরো দলের আক্রমন ভাগ যখন ব্যর্থ, সেখান থেকে টেনেছেন মেসি। এবার আরো একবার সেই জাদু দেখানোর পালা বিশ্বকাপের মত বড় আসরে।

৫. স্পেন: বিশ্বকাপ জয়ের অন্যতম হট ফেভারিট স্পেন। সর্বশেষ দুই প্রীতি ম্যাচের একটিতে জার্মানীর সাথে ১-১ গোলে ড্র করেছে এবং আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ৬-১ গোলের বিশাল জয় পেয়েছে।

স্পেনের এই দলটির মুল চালিকা শক্তি তাদের মাঝমাঠ। অবশ্য ইনিয়েস্তা, ইসকো, বুসকেটসদের মত তারকা যাদের মাঝমাঠে তাদের শক্তি তো সেখানে হবেই। তবে আক্রমন ভাগে অন্য যারা আছে তারাও কোন অংশেই কম নয়।

ডিয়াগো কস্তা, আলভারো মোরাতা, অ্যাসেনসিও, ডেভিড সিলভার তারকারা আছে স্পেনে। এছাড়াও রদ্রিগো একাদশে জায়গা করে নেয়ার জন্য যেন বেশ ভালোভাবেই চাপ প্রয়োগ করছে বাকিদের উপর।

এবার সিদ্ধান্ত আপনার। কোন দলের আক্রমন ভাগ আপনার কাছে সেরা মনে হচ্ছে?

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন