বুধবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৮ ০৬:৩৩:৩৪ পিএম

মন্ত্রীর মেয়েকে খুনের হুমকি, পরিবার নিয়ে দুশ্চিন্তায় মন্ত্রী

আন্তর্জাতিক | বুধবার, ৪ এপ্রিল ২০১৮ | ১২:১৪:৫৯ এএম

জনপ্রিয় গায়ক থেকে তিনি প্রথমে বিজেপি সাংসদ। পরে ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। বাবুল সুপ্রিয়র কেরিয়ার গ্রাফে বড়সড় পরিবর্তন এসেছে। কিন্তু তার জেরে মন্ত্রীর ব্যক্তিগত জীবনও কম বিড়ম্বনার মধ্যে পড়েনি। সম্প্রতি তাঁর মেয়েকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে নেটদুনিয়ায়। তা নিয়েই নিজের মত জানালেন বাবুল।

সম্প্রতি রানিগঞ্জ-আসানসোলে হিংসার ঘটনা নিয়ে শিরোনামে উঠে এসেছেন বাবুল। তার অভিযোগ, পুলিশি নিষ্ক্রিয়তার কারণেই রানিগঞ্জ-আসানসোল রণক্ষেত্র হয়ে উঠেছিল। আসানসোলে ঢুকতে গেলে তাকে বাধা দেওয়া হয়। পুলিশি বাধা পেয়ে উত্তেজিত হয়ে ওঠেন বাবুল। সে সময় তিনি এমন কিছু কথা বলেছিলেন, যা নিয়েও পরে ব্যাপক চর্চা হয়।

অনেকেই বলেছেন বাবুলের মতো শিক্ষিত রাজনীতিকের মুখে এরকম কথা শোভা পায় না। এমনকী বাবুলকে যারা ব্যক্তিগতভাবে চেনেন, তারাও ঠিক মেলাতে পারছিলেন না। আইপিএস হেনস্তারও অভিযোগ উঠেছিল বাবুলের বিরুদ্ধে। অন্যদিকে স্থানীয়দের দাবি ছিল, বাবুল শুধু এক নির্দিষ্ট সম্প্রদায় অধ্যুষিত এলাকাতেই গিয়েছিলেন। তিনি সব জায়গাতে যাওয়ার চেষ্টা করলে কোনও গোষ্ঠীই ক্ষুব্ধ হত না।

এই আবহেই নেটদুনিয়ায় বিশ্রী হুমকি পেয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। কেউ তার মেয়েকে খুনের হুমকি দিয়েছেন। মেয়েকে কলেজ যেতে নিষেধও করেছেন জনৈক ব্যক্তি। খেদ করে সেই মেসেজের স্ক্রিনশট প্রকাশ্যে এনেছেন বাবুল। জানিয়েছেন, ‘আমি জনসমক্ষে কি ধরনের হুমকি পাই দেখুন। আমি পশ্চিমবঙ্গের সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধে নয়, আমার ব্যাক্তিগত স্টাফদের মধ্যে তিনজন মুসলিম, যার মধ্যে আমার গাড়ির চালক ও রয়েছে উনি ১৮ বছর ধরে আমার পরিবারের গাড়ি চালান।’

সংখ্যালঘুদের বিরোধী বলে বাবুলের ভাবমূর্তি গড়ে উঠেছে। তা ভেঙে বাবুল জানান, কোনও সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে তাঁর লড়াই নয়। তিনি সাফ জানান, ‘পশ্চিমবঙ্গে আমার লড়াইটা হল মানবতা ও একতার জন্য লড়াই।’

বাবুলের ইস্তফা নিয়েও সম্প্রতি জল্পনা মাথাচাড়া দিয়েছিল। বাংলায় হিংসার ঘটনার জেরে তিনি পদ ছাড়তে চেয়েছিলেন বলে খবর ছড়িয়েছিল। যদিও বাবুল পরে জানান, পদ ও রাজনীতি ছাড়ছেন না তিনি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দেশের জন্য ২৪ ঘণ্টা লড়াই করেন। প্রধানমন্ত্রীর লড়াই ও নির্দেশেই তিনি তার কাজ করে যাবেন।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন