রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮ ০৫:৫০:৪৫ এএম

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবির কাছে কোনো আপস নয়: মির্জা ফখরুল

রাজনীতি | শনিবার, ৭ এপ্রিল ২০১৮ | ০৯:১৩:৪১ পিএম

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এখন শুধু আলোচনার বিষয় একটাই। সেটা খালেদা জিয়ার মুক্তি। তার মুক্তির দাবির কাছে কোনো আপস নয়। আগে তাকে মুক্তি দিতে হবে, তারপর অন্য আলোচনা।

শনিবার বিকেলে বরিশালের হেমায়েত উদ্দিন কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে আয়োজিত জনসভায় তিনি এ কথা বলেন। বরিশাল মহানগর বিএনপির উদ্যোগে এ বিভাগীয় সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

সমাবেশে উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্যে মির্জা ফখরুল বলেন, যিনি (খালেদা জিয়া) গণতন্ত্রের মাতা, এই দেশের মানুষের মুক্তির জন্য যিনি আজীবন লড়াই করেছেন, সেই নেত্রীর মুক্তির জন্য আপনারা আজ এখানে এসেছেন।

‘শুক্রবার বেগম জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলাম, তাকে যখন বললাম-কালকে বরিশালে জনসভা করতে যাচ্ছি। তখন তিনি বললেন, বরিশালের জনগণকে আমার সালাম জানাবেন। বরিশালের মানুষ সংগ্রামী লড়াকু। তারা গণতন্ত্রের লড়াইয়ে আছে।’

তিনি বলেন, ২০১৪ সালের নির্বাচনে এই দেশের জনগণ তাদের ভোট দেয়নি। বর্তমান অবৈধ সরকার গায়ের জোরে বন্দুকের জোরে ক্ষমতায় বসে আছে। তারা আজ ‘জনগণের নেত্রীকে’ সুচিকিৎসা পর্যন্ত দিচ্ছে না।

‘আজকে আপনাদের পরীক্ষা দেওয়ার সময় এসেছে। পরীক্ষায় আপনাদের জয়ী হতে হবে। অন্যথায় চির জীবনের মতো আবদ্ধ হয়ে থাকতে হবে,’ -বলেন ফখরুল।

নেতা-কর্মীদের ধৈর্য ধরার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, দয়া করে ধৈর্য ধরুন, শান্তি-শৃঙ্খলার মধ্যে থাকেন। ‘নেত্রী’ যে নির্দেশ দেবেন- তা পালন করতে হবে। তবে এর আগে তাকে জেল থেকে বের আনতে আন্দোলন শান্তিপূর্ণ আন্দোল করতে হবে।

দেশের মানুষের অধিকার রক্ষায় সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, গণতন্ত্রকে রক্ষার জন্য, মানুষকে রক্ষার জন্য আসুন আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ হই। বুকের ওপর চেপে বসা স্বৈরাচার সরকারকে পরাজিত করে একটি জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করি।

কেন্দ্রীয় বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও বরিশাল মহানগর শাখার সভাপতি মজিবর রহমান সরোয়ারের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, ড. আবদুল মঈন খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) আলতাফ হোসেন চৌধুরী, সেলিমা রহমান, ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর, আবদুল আউয়াল মিন্টু, বরকত উল্লাহ বুলু, সাংগঠনিক সম্পাদক বিলকিস জাহান শিরীন, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান প্রমুখ।

বিভাগীয় এ সমাবেশে বরিশাল মহানগর, জেলা, ঝালকাঠী, পটুয়াখালী, ভোলা, পিরোজপুর, বরগুনাসহ এ অঞ্চলের বিভিন্ন এলাকা থেকে লাখো দলীয় নেতা-কর্মী উপস্থিত হন।

দুপুর ২টার আগেই ঈদগাহ মাঠ কানায় কানায় ভরে যায়। এরপর আশপাশের সড়কে অবস্থান নেন আগত নেতা-কর্মী ও সাধারণ মানুষ।

সমাবেশস্থলে উপস্থিতদের ‘খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই, মুক্তি চাই’সহ বিভিন্ন স্লোগান দিতে শোনা গেছে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন