শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮ ০৩:১৩:৪০ এএম

তিন জনের রিমান্ড, ৭ জন কারাগারে

আইন আদালত | রবিবার, ৮ এপ্রিল ২০১৮ | ০৮:২১:৩৫ পিএম

কারাগার থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গাড়িবহর থেকে গ্রেপ্তার তিন আসামির একদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। আর সাত আসমিকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

রোববার ঢাকা মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদারের আদালত এ আদেশ দেন।

রিমান্ডে যাওয়া আসামিরা হলেন-ঢাকা কলেজের ছাত্রদলের সহ-সভাপতি সাইফুল ইসলাম তুহিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান রাসেল ও রামপুরা থানার স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সভাপতি মাসুদ ওরফে মাছুম।

আর কারাগারে যাওয়া আসামিরা হলেন-মেহেদী হাসান হিমেল, জাকির উদ্দিন আবীর, হাবীবুর রহমান হিমেল, শাহিন আলম, হাফিজুর রহমান, রাকিবুল ইসলাম ও নাসির উদ্দিন সরকার।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শাহবাগ থানার এসআই রহিদুল ইসলাম আসামিদের আদালতে হাজির করেন। সাইফুল ইসলাম তুহিন, আতিকুর রহমান রাসেল ও মাসুদ ওরফে মাছুমের পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করেন। আর মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত অপর সাত আসামিকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

অরপদিকে আসামিপক্ষে সানাউল্লাহ মিয়া, ইকবাল হোসেন প্রমুখ আইনজীবীরা ওই তিন আসামির রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন শুনানি ও অপর সাত আসামির জামিন চেয়ে শুনানি করেন।

উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত তিন আসামির একদিন করে রিমান্ড ও সাত আসামিকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

প্রসঙ্গত, গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে খালেদা জিয়াকে বহনকারী গাড়িবহর বিএসএমএমইউ হাসপাতালে প্রবেশ করেন। খালেদা জিয়াকে বহনকারী গাড়িবহর হাসপাতালের গেটে পৌঁছানোর সঙ্গে সঙ্গে তার গাড়িবহরে ঢল নামে নেতা-কর্মীদের। পুলিশের নিরাপত্তা বেস্টনির মধ্যেই হাসপাতালের গেটে খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে যোগ দেয় নেতা-কর্মীরা।

মুহূর্তের মধ্যেই কয়েকশ নেতা-কর্মী স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত করে তোলে। তারা খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে স্লোগান দেয়। এ সময় তাদের ওপর লাঠিচার্জ করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর লাঠিচার্জে ছত্রভঙ্গ হয়ে যায় নেতা-কর্মীরা। এ সময় তাদের আটক করে পুলিশ।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন