বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮ ১২:১২:১৬ পিএম

তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগের সম্মেলন কাল, শেষ মুহুর্তে আলোচনায় যারা

সাদির হোসেন রাহিম | শিক্ষাঙ্গন | রবিবার, ৮ এপ্রিল ২০১৮ | ১০:২৮:৩০ পিএম

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সরকারি তিতুমীর কলেজ শাখার প্রথম সম্মেলন আগামীকাল সোমবার অনুষ্ঠিত হবে। এ উপলক্ষে ক্যাম্পাসে সাজ সাজ রব বিরাজ করছে।

ছাত্রলীগ সূত্রে জানা যায়, সম্মেলনের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি রহমত উল্ল্যাহ এমপি, উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ, প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন।

সম্মেলনে সভাপতিত্ব করবেন তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি কাজী মিরাজুল ইসলাম ডলার ও সঞ্চালনা করবেন সাধারণ সম্পাদক মানিক হোসেন মানিক।

প্রথম দিকে সম্ভাব্য প্রার্থী তালিকায় ক‌য়েক ডজন নেতার নাম থাকলেও শেষ মুহুর্তে আলোচনায় রয়েছেন হাতেগুনা কয়েকজন। তারা হলেন, সভাপতি পদের জন্য কলেজ ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী হামিদুর রহমান সবুজ ও কলেজ ছাত্রলীগের বর্তমান ক‌মি‌টির সাংগঠনিক সম্পাদক মারুফ হোসাইন।

সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনায় রয়েছেন, কলেজ ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল করিম সানি ও কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন।

সভাপতি পদ-প্রার্থীর মধ্যে, গাজী হামিদুর রহমানের বাড়ি গোপালগঞ্জ জেলায় । সে হিসেবে তার কমিটিতে আসার সম্ভাবনা রয়েছে। অপরদিকে মারুফ হোসাইনের বাড়ি মাদারীপুরে। সে নৌ-পরিবহন মন্ত্রীর একান্ত বিশ্বস্ত বলে জানা যায়, সে হিসেবে তারও এ পদে আসার সম্ভাবনা রয়েছে।

এছাড়া ও সভাপতি পদপ্রার্থী হিসেবে নাম এসেছে কলেজ ছাত্রলীগের আরেক সাংগঠনিক সম্পাদক এম. সাইফুল্লাহ খন্দকার (উজ্জ্বল)। তার বাড়ি মাগুরায়। সে বর্তমান সভাপতি কাজী মিরাজুল ইসলাম (ডলার) এর একান্ত প্রার্থী বলে জানা যায়।

এদিকে সাধারণ সম্পাদক পদ প্রার্থীর মধ্যে রেজাউল করিম সানির বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়। সে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইনের অনুসারী। কলেজ ও কলেজের একমাত্র ছাত্রাবাসে রয়েছে তার একক জনপ্রিয়তা। কলেজ ক্যাম্পাসকে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ ও বিএনপি জামাতমূক্ত করতে তার বিশাল অবদান রয়েছে। সে হিসেবে অনেকে ধরে নিয়েছেন তিনি এ পদ পাবেন। অপর সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী দেলোয়ার হোসেন এর বাড়ি ময়মনসিংহ। সেও এসএম জাকির হোসেনের অনুসারী। তারও এ পদে আসার সম্ভাবনা দেখছেন নেতাকর্মীরা।

ক্যাম্পাসে একাধীক ছাত্রের সাথে কথা বলে জানা যায়, বাকি আরও ডজন খানেক প্রার্থী থাকলেও তাদের অনেকের ছাত্রত্ব ৪/৫ বছর আগেই শেষ হয়ে গেছে। আর ক্যাম্পাসে তাদের কোন কর্মী নেই। তাই তাদের পদ পাওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদস্য এবং তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগের প্রভাবশালী সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম (অপু) বলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ ক্যাম্পাসে খোঁজ নিচ্ছে, যাদের কর্মী রয়েছে, যারা প্রকৃত ছাত্র, পরিশ্রমী, সৎ ও যোগ্য, বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে লালন করে সেই নেতৃত্বের হাতেই দায়িত্ব অর্পণ করবেন।

এদিকে সম্মেলন সফল করতে পদ প্রার্থী ও তাদের কর্মীরা প্রচার-প্রচারণায় সরব রয়েছেন। নিজেদের প্রার্থীর পক্ষে সবাই কাজ করে যাচ্ছেন।

তবে কে হচ্ছে তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগের পরবর্তী কর্ণধার তা সম্মেলন শেষ হওয়ার আগ মুহূর্ত পর্যন্ত নিশ্চিতভাবে বলা যাচ্ছে না।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন