শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ০৭:৩২:৩৫ এএম

তথ্য ফাঁসের দায়ভার নিলেন জাকারবার্গ

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি | মঙ্গলবার, ১০ এপ্রিল ২০১৮ | ০৩:৪৮:৫১ পিএম

তথ্য ফাঁসের দায় নিজের কাঁধে নিলেন মার্ক জাকারবার্গ। তবে এজন্য নিজের পদ থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন না তিনি। আর তথ্য ফাঁসের জন্য ক্ষমাও চাইবেন। সোমবার (৯ এপ্রিল) বিবৃতিতে এমনটা বললেন ফেসবুক প্রধান মার্ক জাকারবার্গ। খবর বিবিসির।

ফেসবুকের বিরুদ্ধে সাম্প্রতিক সময়ে মানুষের ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁসের যে অভিযোগ উঠেছে তা নিয়ে কংগ্রেসে আগামীকাল বুধবার (১১ এপ্রিল) সাক্ষ্য দেবেন তিনি।

ব্রিটিশ প্রতিষ্ঠান ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকা কীভাবে লাখ লাখ ফেসবুক ব্যবহারকারীর তথ্য পেলো যা যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে প্রভাব ফেলতে পারে, এমন সব প্রশ্নের উত্তর ও ব্যাখ্যা দেবেন জাকারবার্গ।

কংগ্রেশনাল কমিটির চেয়ারম্যান গ্রেগ ওয়াল্ডেন ও র‍্যাংকিং ডেমোক্রেট ফ্রাংক প্যালোন বলেন, ওই সাক্ষ্যের পর সবকিছু পরিস্কার হবে এবং সামাজিক মাধ্যম নিয়ে যে শঙ্কা তা দূর হবে। তিনটি কংগ্রেশনাল কমিটির প্যানেলে জাকারবার্গ সাক্ষ্য দেবেন।

এ নিয়ে ডেমোক্র্যাটিক সিনেটর রিচার্ড ব্লুমেনথাল বলেন, প্রযুক্তি শিল্পে সময়টা বড় ভয়ানক। এ বার সব হিসেব বুঝে নিতেই হবে।

সিনেটের বাণিজ্য এবং বিচারবিভাগীয় কমিটির ডাকা যৌথ শুনানিতে জাকারবার্গকে মুখোমুখি হতে হবে প্রায় ৪৩ জন সদস্যের।
কংগ্রেসের একটা বড় অংশ ফেসবুক প্রধানের কাছে ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকাকে তথ্য তুলে দেয়া সম্পর্কে জানতে চাইবেন।

এক রিপাবলিকান সিনেটর বলেন, ‘আমি জানতে চাইব, ভবিষ্যতে ফেসবুক ব্যবহারকারীর তথ্য নিরাপদ রাখতে কী কী পদক্ষেপ করছে কর্তৃপক্ষ। নাকি, এভাবেই তথ্য ফাঁস হবে আগামী দিনগুলোতেও।’

এদিকে জাকারবার্গ জানান, ফেসবুক ঢেলে সাজানোর কাজ শুরু হয়ে গেছে। এতে সময় লাগবে আরও কয়েক বছর। ব্যবহারকারীর প্রাইভেসি সেটিংসে পরিবর্তন আনতে চাইছেন কর্তৃপক্ষ। ফেসবুকে ইমেইল বা ফোন নম্বর দিয়ে কারও প্রোফাইল খোঁজার ব্যবস্থাও উঠে যেতে পারে। আর নজর রাখা হচ্ছে ফেসবুকের জনপ্রিয় পেজগুলোর উপর।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন