সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮ ০৮:৪২:৩৩ এএম

এবার চোটের মিছিলে যোগ দিলেন আরেক অল-রাউন্ডার

খেলাধুলা | বুধবার, ১১ এপ্রিল ২০১৮ | ০৮:০৩:৫৬ পিএম

একদিন আগেই হাঁটুর লিগামেন্ট ছিঁড়ে ৬ মাসের জন্য মাঠের বাইরে চলে গেছেন অল-রাউন্ডার নাসির হোসেন। এবার চোটের মিছিলে যোগ দিলেন আরেক অল-রাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ। এর আগে কাঁধের চোট নিজের সেরা ফর্ম থেকে ছিটকে দিয়েছে কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমানকে। দীর্ঘ সময় লড়াই করে সুস্থ হওয়ার পর এখনও নিজের ছন্দে ফিরতে পারেননি। এবার জানা গেল, মেহেদী মিরাজও ঠিক একইরকম চোটে আক্রান্ত হয়েছেন! পুরনো চোট আবার ফিরে এসেছে তার কাঁধে।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের পর সতীর্থরা বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) খেলা শুরু করলেও মিরাজ আপাতত বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরীর কাছেই চিকিৎসা নিচ্ছেন। তার চোট নিয়ে দেবাশীষ চৌধুরী বলেছেন, `মুস্তাফিজের যে ইনজুরিতে অপারেশন করতে হয়েছে, অনেকটা কাছাকাছি ধরনেরই ইনজুরি এটা। ডান কাঁধের এই ইনজুরি অনূর্ধ্ব-১৯ দলে খেলার সময় থেকেই ওকে ভোগাচ্ছে। চিকিৎসাও হয়েছে। তবে মোটামুটি ম্যানেজেবল অবস্থায় ছিল। সম্প্রতি ওর থ্রোয়িংয়ে সমস্যা হচ্ছিল। আমরা এমআরএই করিয়েছি, তাতে ওর ল্যাবরাল টিয়ার ধরা পড়েছে।`

ইনজুরির ফলে মিরাজের সমস্যাগুলো নিয়ে তিনি বলেন, ‘মিরাজের ব্যাটিংয়ের সমস্যা হচ্ছে না। মূল সমস্যা থ্রোয়িংয়ে। বোলিংও করতে পারছে। তবে প্রথম দিকে দুই-তিন ওভার ধুঁকছে। পরে শরীর গরম হলে ব্যথা কমে আসছে। এই পর্যায়ের ক্রিকেটে এ রকম ইনজুরি নিয়ে চলা মুশকিল। আমরা চেষ্টা করব পুরোপুরি ঠিক করে তুলতে। কনজারভেটিভ উপায়ে কাজ না হলে দেড়-দুই মাস পর অবশ্যই সিদ্ধান্ত নিতে হবে।’

এ ধরণের চোট কাটাতে অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন হয়। যেমনটা মুস্তাফিজের বেলায় হয়েছিল। অস্ত্রোপচার করলে দীর্ঘ সময়ের জন্য মাঠের বাইরে যেতে হবে এই তরুণ অল-রাউন্ডারকে। তাই দেবাশীষ চৌধুরী চেষ্টা করছেন যাতে অস্ত্রোপচার না করে চোট কাটানো যায়। তার ভাষায়, ‘আমরা কনজারভেটিভ উপায়ে চেষ্টা করছি ম্যানেজ করার জন্য। আগামী দেড় থেকে দুই মাস চেষ্টা করব ইনজেকশন অথবা ফিজিওথেরাপি দিয়ে ম্যানেজ করতে। এরপরও ব্যথা না কমলে, সমস্যা থেকে গেলে পরবর্তীতে অপারেশনে যেতে হবে।’

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন