বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ ০২:৫৯:৫০ এএম

রডের দাম কমাতে কাজ করার তাগিদ

অর্থনীতি | মঙ্গলবার, ১৭ এপ্রিল ২০১৮ | ১০:৩৫:১৬ পিএম


হঠাৎ করেই দেশের বাজারে রডের দাম বেড়ে যাওয়ায় তা কমানোর জন্য সংশ্লিষ্টদের কাজ করার তাগিদ দিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া।

মঙ্গলবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সম্মেলন কক্ষে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রাক-বাজেট আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে চেয়ারম্যান এ তাগিদ দেন।

সভায় নির্মাণ, ইট, পাথর, লৌহ, ঔষধ অ্যাসোসিয়েশন নেতারা প্রাক-বাজেটে তাদের বাজেট প্রস্তাব তুলে ধরেন।

বাজেট প্রস্তাবে অটো রি-রোলিং অ্যাসোসিয়েনের নেতারা বলেন, দেশে ভাল মানের রড উৎপাদন হচ্ছে। এখন দেশের চাহিদা মিটিয়ে রড বিদেশে রপ্তানি হচ্ছে।

বিশ্ববাজারে এ শিল্পের অবস্থান আরও শক্ত করতে রড বা বার আমদানি নিরুৎসাহিত করার জন্য তারা আসন্ন অর্থবছরে বাজেটে কাস্টমস ডিউটি ৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২৫ শতাংশ রাখার দাবি রাখেন । এছাড়া এ শিল্পের বিকাশে আরো সাতটি দাবি তুলে ধরা হয়।

আর্থিক প্রণোদনার দাবি করে বাংলাদেশ ওষুধ শিল্প সমিতির নেতারা বলেন, দেশের ওষুধ বিদেশে রপ্তানি হচ্ছে। বর্তমানে বাংলাদেশের ৩০টি ওষুধ কোম্পানির ওষুধ দেড়শ দেশে রপ্তানি হচ্ছে। বিশ্বে বাংলাদেশের ওষুধের চাহিদা থাকলেও বিভিন্ন কারণে গত বছরে কাঙ্খিত সাফল্য আসেনি। তাই এ শিল্পের সুষ্ঠু বিকাশে ফার্মাসিউটিক্যালস প্রোডাক্ট, ওষুধের কাঁচামাল ও মেডিক্যাল ডিভাইসেস পণ্য রপ্তানির ক্ষেত্রে ১০ শতাংশ নগদ আর্থিক প্রণোদনা দরকার। এছাড়া তারা শুল্ক, ভ্যাট ও করের ব্যাপারে ২১টি দাবি তুলে ধরেন।

বর্তমানে দেশে পাথর উত্তোলন বন্ধ রয়েছে। এতে পাথর ব্যবসা হুমকির মুখে পড়েছে। এ ব্যবসা টিকিয়ে রাখতে পাথর ব্যবসায়ী অ্যাসোসিয়েশনের পাথর উত্তোলনের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে এনবিআরের চেয়ারম্যান বলেন, ‘পাথর উত্তোলন বন্ধ হয়েছে পরিবেশবাদীদের অভিযোগের কারণে। আমরা তাদের সঙ্গে বসবো এবং আলোচনা করবো। কিভাবে তা চালু করা যায়, সেই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব।’

ইট ব্যবসায়ীরা জানান, তাদের ব্যবসায় ভাটা যাচ্ছে। উচ্চহারে তাদের কাছ থেকে রাজস্ব নেয়া হচ্ছে। শুধু কিছু সমস্যার কারণে এটি হচ্ছে। এসব সমস্যা সমাধানে তারা এনবিআরের সহায়তা চান। একই সঙ্গে আগামী দিনগুলোতে এ শিল্পে আরও শক্ত অবস্থান রাখার জন্য আর্থিক সহয়তা দান এবং কর-ভ্যাট কমানোর ব্যাপারে বেশ কিছু দাবি জানান।

এ দাবির পরিপ্রেক্ষিতে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ‘পুরোনো পদ্ধতি বাদ দিয়ে আধুনিক টেকনোলজি ব্যবহার করুন।’

তিনি আরো বলেন, ‘আপনাদের অনেকের কাছে প্রচুর রাজস্ব বকেয়া রয়েছে। আপনারা তা পরিশোধ করার ওপরে জোর দিন। আমরাও দেশের উন্নয়নে আপনাদের যৌক্তিক দাবি রাখবো।’

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন