বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮ ০৯:৩১:৫৮ এএম

আবারো বোলিংয়ে বিবর্ণ সাকিব

খেলাধুলা | রবিবার, ২২ এপ্রিল ২০১৮ | ০৭:২৫:১২ পিএম

প্রথম তিন ম্যাচেই অন্তত একটি উইকেট পেয়েছিলেন। সেখানে পরের দুই ম্যাচে কোনো উইকেটই পেলেন না সাকিব আল হাসান।

আইপিএলে আজ সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে বোলিংটা ভালো করতে পারেনি সাকিব। ৪ ওভারে ৩২ রান দিয়ে উইকেটশূন্য ছিলেন বাংলাদেশের অলরাউন্ডার।

আজ একটি উইকেট পেলেই মাত্র দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসেবে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ৪ হাজার রান ও ৩০০ উইকেটের ডাবল অর্জন করতেন সাকিব। ২৯৯ উইকেট নিয়ে খেলতে নামা সাকিবের অপেক্ষাটা আবারো বাড়ল।

বাঁহাতি স্পিনার শুরুটা যদিও ভালোই করেছিলেন। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে প্রথমবার আক্রমণে এসে দেন মাত্র ৪ রান, দুটি ডট বল। সপ্তম ওভারে এসে খরচ করেন ৫ রান। প্রথম দুই ওভারে দেন ৯ রান।

১৩তম ওভারে আবার আক্রমণে আসেন সাকিব। এবার এই ওভার থেকেই দেন ৯ রান। আর কোটার শেষ ওভারে খরচ করেন ১৪ রান। এর মধ্যে আম্বাতি রাইডু টানা দুই বলে হাঁকান একটি করে ছক্কা ও চার।

সবচেয়ে বড় ঝড়টা গেছে অবশ্য আরেক স্পিনার রশিদ খানের ওপর দিয়ে। রশিদ নিজের প্রথম বলেই নিয়েছিলেন উইকেট, এই ওভারে দিয়েছিলেন ৫ রান। নিজের পরের ৩ ওভারে ৪৪ রান দিয়ে আর কোনো উইকেট পাননি!

চেন্নাই প্রথম ১০ ওভারে এবারের আইপিএলের সর্বনিম্ন ২ উইকেটে ৫৪ রান করেছিল, আর শেষ ১০ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে তুলেছে ১২৮‍ রান! ২০ ওভারে তাদের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১৮২। যেখানে বড় অবদান রাইডুর। ৩৭ বলে ৯ চার ও ৪ ছক্কায় সর্বোচ্চ ৭৯ রান করেন রাইডু। সুরেশ রায়না ৫৩ ও মহেন্দ্র সিং ধোনি ২৫ রানে অপরাজিত ছিলেন।

প্রথম তিন ম্যাচ জয়ের পর সবশেষ ম্যাচে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের কাছে হেরেছে হায়দরাবাদ। সেই ম্যাচে বোলিংয়ে ২ ওভারে ২৮ রান দিয়ে উইকেটশূন্য ছিলেন সাকিব। তবে ব্যাট হাতে ১২ বলে ২ ছক্কা ও এক চারে করেছিলেন অপরাজিত ২৪ রান। আজ তিনি ব্যাটিংয়ে জ্বলে উঠতে পারেন কি না, সেটাই এখন দেখার।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন