বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ২০১৮ ১০:০৮:৫৮ এএম

‘বাচাল’ নেতাদের সতর্কবার্তা নরেন্দ্র মোদির

আন্তর্জাতিক | সোমবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৮ | ১২:১৮:৫৩ পিএম

ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) ‘বাচাল’ নেতাদের আবার সতর্ক করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

রোববার দেশজুড়ে আইনপ্রণেতাদের সঙ্গে এক ভিডিও কনফারেন্সে কথা বলার সময় তিনি বলেন, হুটহাট হাস্যকর কথাবার্তার কারণে একদিকে সেসব নেতার যেমন সম্মান নষ্ট হচ্ছে, একই সঙ্গে ইমেজ সংকটে পড়ছে বিজেপি।

সম্প্রতি বিজেপির বেশ কয়েকজন সংসদ সদস্য (এমপি) ও নেতা সন্ত্রাস থেকে ধর্ষণ এবং মহাভারত থেকে ডারউইন পর্যন্ত বিষয়ে ভিত্তিহীন, অবৈজ্ঞানিক মন্তব্য করে সমালোচনার মুখে পড়েছেন।

মোদি বলেন, ‘আমরা ভুল করি। আর মিডিয়ার কাছে মাসালা ঝাড়ি। যেন আমরাই মহান সমাজবিজ্ঞানী হয়ে গেছি। যে ইস্যুই পাই বিশ্লেষণ করার মতো যেন বিশেষজ্ঞ হয়ে গেছি।’
তিনি আরও বলেন, ‘যখনই ক্যামেরার সামনে পড়েন, আপনারা বকবক শুরু করেন। আর এ কারণেই এমন সব ফালতু কথা মিডিয়ায় উঠে আসে।’

গতকালই জুনিয়র বাণিজ্যমন্ত্রী সন্তোষ গ্যাংওয়ার বিতর্কের মুখে পড়েছেন। ধর্ষণে সর্বোচ্চ শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ডের যে বিধান হচ্ছে, এ নিয়ে তিনি বলেছেন, এত বড় দেশে দু-একটা ঘটনার জন্য অত বাড়াবাড়ি ঠিক হচ্ছে না। উল্লেখ্য, দেশটির রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ রোববার ওই অধ্যাদেশে সই করেছেন।

জম্মু-কাশ্মীরে শিশু আসিফা বানু ধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডে ঘটনায় বিক্ষোভের মুখে রাজ্যের দুই বিজেপি মন্ত্রী এরই মধ্যে পদত্যাগও করেছেন। গত মাসে বিহারের সংসদীয় আসন আরারিয়ায় উপনির্বাচনে বিজেপিকে হারিয়েছে লালু জাদবের আরজেডি। এর পরই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজ সিংহ মন্তব্য করেন, জেলাটি শিগগিরই ‘সন্ত্রাসের আবাসভূমি’তে পরিণত হবে।

চলতি মাসে ত্রিপুরা রাজ্যের বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব দাবি করেন, ইন্টারনেট ও স্যাটেলাইটের মতো প্রযুক্তি মহাভারতের যুগেই তৈরি করেছিল প্রাচীন ভারতীয়রা।
গত জানুয়ারিতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সত্যপাল সিং বলেন, ডারউইনের তত্ত্ব ‘বৈজ্ঞানিকভাবে ভুল’, কেননা বনমানুষ থেকে যে আমরা মানুষ হয়েছি, এর তো কোনো সাক্ষী নেই।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন