সোমবার, ১৬ জুলাই ২০১৮ ০৫:০২:৫০ এএম

নাগরিকত্ব নির্ধারিত হওয়ার পর সেই অধিকার থেকে বঞ্চিত করা যায় না

শিক্ষাঙ্গন | মঙ্গলবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৮ | ০৪:৫৯:৪১ পিএম

গোটা দেশে চলছে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমানের নাগরিকত্ব নিয়ে প্রশ্ন। তিনি তার নাগরিকত্ব হারাতে যাচ্ছেন কিনা এ নিয়ে জনমনে প্রশ্ন উঠছে। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহিরয়ার আলম ইতোমধ্যে ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্র দপ্তরের মাধ্যমে বাংলাদেশ হাইকমিশনে তারেক রহমানের পাসপোর্ট ফিরিয়ে দেওয়ার নথি দেখিয়েছেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রীর মতে তারেক রহমান এখন আর বাংলাদেশের নাগরিক নন । তবে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আর রাজী বলছেন, পাসপোর্টের সাথে নাগরিকত্বের সম্পর্ক খুব ক্ষীণ। কোনো নাগরিকের নাগরিকত্ব নির্ধারিত হওয়ার পর তাঁকে সেই অধিকার থেকে বঞ্চিত করা যায় না।

গতকাল আর রাজী তার ফেসবুকে ‘নাগরিকত্ব ও পাসপোর্ট’ এই হেডলাইনে একটি পোষ্ট করেন। ওই পোষ্টের কমেন্টসে আনোয়ারুল করিম রাজু নামে এক ফেসবুক ব্যবহারকারী আর রাজীকে প্রশ্ন করেন যে, ‘রাষ্ট্র যদি কারও পাসপোর্ট বাতিল করে অথবা নবায়ন করতে অস্বীকৃতি জানায়- তাহলে কি তার নাগরিকত্ব বাতিল বলে গণ্য হয়? জানাবেন…’

এমন প্রশ্নের জবাবে আর রাজী বলেন, ‘পাসপোর্টের সাথে নাগরিকত্বের সম্পর্ক খুব ক্ষীণ। কোনো নাগরিকের নাগরিকত্ব নির্ধারিত হওয়ার পর তাঁকে সেই অধিকার থেকে বঞ্চিত করা যায় না। এটা আইনের স্বতঃসিদ্ধ নিয়ম।’

তিনি আরো বলেন, ‘বাংলাদেশের নাগরিকত্ব পরিত্যাগকারীদের কেউ পুনরায় বাংলাদেশের নাগরিকত্ব গ্রহণের আবেদন করলে সরকার সে আবেদনের যৌক্তিকতা বিবেচনা করতে পারবে।’

আর রাজীর ফেসবুক পোষ্টটি নিচে দেওয়া হলো:

“বাংলাদেশ বনাম গোলাম আযম মামলায় বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ তাদের রায়ে বলে, সংবিধানের দ্বিতীয় অনুচ্ছেদে বাংলাদেশের নাগরিক বলে বিবেচিত কোনো ব্যক্তিকে আনুগত্যের শপথ গ্রহণ করতে হবে না।”

রায়ে আরও বলা হয়, “পাসপোর্ট আপাতদৃষ্টিতে নাগরিকত্বের প্রমাণ, তবে অকাট্য প্রমাণ নয়; কারণ অধুনা পৃথিবীর বহু দেশেই ভিন্ন দেশিয় লোকদের পাসপোর্ট দেয়ার প্রথা ব্যাপকভাবে চালু আছে।”

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ পাসপোর্ট আদেশ ১৯৭৩ (রাষ্ট্রপতির ১৯৭৩ সালের ৯নং আদেশ)-এর ১৫ অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে যে, “সরকার বাংলাদেশের নাগরিক নন এমন ব্যক্তিকেও পাসপোর্ট বা ভ্রমণ দলিল প্রদান করতে পারেন।”

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন