সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮ ০১:৫২:২৭ পিএম

রোজার আগেই পশ্চিমবঙ্গে ভোট

আন্তর্জাতিক | শুক্রবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৮ | ০২:০৩:১৯ পিএম

পশ্চিমবঙ্গে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের সময় শুরু হয়েছে গত বৃহস্পতিবার থেকেই। বিকাল পর্যন্ত রাজ্যবাসীর মনে প্রশ্ন ছিল ভোট কবে? নির্বাচনের দিন কবে ঘোষণা করবে কমিশন? অবশেষে বিকালেই রাজ্য সরকারের দাবি মেনে আগামী ১৪ মে একদফায় ভোটগ্রহণের ঘোষণা করল রাজ্য নির্বাচন কমিশন। এক দফায় ভোটগ্রহণের দিন ঘোষণা হতেই প্রশ্ন তুলছেন বিরোধীরা। শুক্রবারই আদালতের দ্বারস্থ হওয়ার সিদ্ধান্তও নিয়েছেন তারা।

বিরোধীদের আদালতে যাওয়ার বিষয়টিকে কেন্দ্র করে কার্যত কোনও ‘চাপ’ নিচ্ছেন না কমিশনের কর্মকর্তারা। প্রথম থেকেই রাজ্য নির্বাচন কমিশনের এক দফা ভোটে আপত্তি ছিল। এমনকি নিরাপত্তা বাহিনী নিয়েও রাজ্য সরকারের সঙ্গে রাজ্য নির্বাচন কমিশনের মতানৈক্য হয়েছে।

বৃহস্পতিবার নবান্ন থেকে ফ্যাক্স মারফত কমিশনকে জানিয়ে দেওয়া হয়, এক ঘণ্টার মধ্যে বিজ্ঞপ্তি জারি না হলে রাজ্য সরকারই ভোটের দিন জানিয়ে দেবে। নির্বাচন এক দফায় করতে চায় রাজ্য সরকার এবং সেটা অবশ্যই ১৪ মে। পুনঃনির্বাচন ১৬ এবং ভোট গননা হবে ১৭ মে। শেষ পর্যন্ত এক প্রকার ‘বাধ্য’ হয়েই দিন ঘোষণা করতে হয় কমিশনকে।

এই এক দফার ভোট প্রসঙ্গে কমিশনের ব্যাখ্যা, ১৭ মে রমজানের রোজা শুরু হচ্ছে। তার পরেই বর্ষা চলে আসবে। তাই রাজ্য সরকার তার আগে অর্থাৎ ১৬ মের মধ্যে ভোট করতে চায়। নির্বাচন কমিশন ও তাতে সম্মতি জানিয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ভোটের দিন ঘোষণা হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, নির্বাচনটা হোক। গনতন্ত্রপ্রিয় মানুষ নির্বাচনটা চায়। নির্বিঘ্নে ভোট চায়। গনতান্ত্রিকভাবে পঞ্চায়েত প্রতিনিধিরা নির্বাচিত হোক।

রাজ্যে ৪৮ হাজার ৬৫০টি গ্রাম পঞ্চায়েতের আসন, পঞ্চায়েত সমিতির আসন ৯ হাজার ২১৭টি এবং জেলা পরিষদের ৮২৫টি আসনে নির্বাচন হবে। ৫৮ হাজার বুথে ভোট গ্রহণ হবে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন