রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ০৪:৩৭:৫৫ পিএম

ক্রিকেটেও আসছে ব্রাজিল আর্জেন্টিনার যুদ্ধ

খেলাধুলা | শনিবার, ২৮ এপ্রিল ২০১৮ | ০৪:১০:২২ পিএম

এতোদিন টি-টোয়েন্টি খেলার মর্যাদা ছিলো কেবল ১৮টি দেশের। যে ফরম্যাট দিয়ে আইসিসি ক্রিকেটের বিশ্বায়ন করতে চায়, সেই ফরম্যাটের সদস্য সংখ্যা ছিলো মাত্র ১৮টি! ক্রিকেটেও আসছে ব্রাজিল আর্জেন্টিনার যুদ্ধ।

এ নিয়ে আইসিসিকে কম সমালোচনা সহ্য করতে হয়নি। কিন্তু তাতেও নতুন কোনো ভাবনার উদয় হয়নি ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থার। দিনে দিনে অনেক দিন কেটে যাওয়ার টনক নড়লো আইসিসির। হাস্যকর এক সংস্থা হিসেবে হাসির নানা রকম খোরাক জোগানোর পাশাপাশি এবার একটা দুর্দান্ত কাজও করে ফেললো তারা।

এই কাজের ফলেই হয়তো ক্রিকেটের সত্যিকারের বিশ্বায়ন ঘটতে যাচ্ছে। কাজটা কী..?

কাজটা হলো, আইসিসি তার সব সদস্য দেশকে টি-টোয়েন্টি মর্যাদা দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ফলে ১৮ থেকে টি-টোয়েন্টি খেলার মর্যাদাপ্রাপ্ত দেশের সংখ্যা বেড়ে এক লাফে হয়ে যচ্ছে ১০৪!

টেস্ট খেলুড়ে ১২ দেশ এবং নেদারল্যান্ডস, নেপাল, স্কটল্যান্ড, হংকং, ওমান ও আরব আমিরাতের সঙ্গে নতুন ৮৬টি দেশের মধ্যকার যে কোনো টি-টোয়েন্টি এখন মর্যাদা পাবে আন্তর্জাতিকের।

আগামী তিন বছরে বসতে যাচ্ছে ক্রিকেটের তিন বিশ্বকাপ। এর মধ্যে দুটিই আবার টি-টোয়েন্টির। অর্থাৎ ২০ ওভারের ক্রিকেট হয়ে উঠেছে আইসিসির সোনার ডিম। পরিস্থিতি এমনই উত্তেজনাকর যে, আইসিসি নতুন ৮৬টি দেশকে সঙ্গে টি-টোয়েন্টির মর্যাদা দিয়ে দিলো!

হ্যা, অবশ্যই বিজনেস একটা বড় ব্যাপার। সব খেলাই আসলে এখন বিজনেস। সুতরাং বিজেনেসের জন্য আইসিসি এই কাজ করেছে, সেই কথা বলে আইসিসিকে ছোট করার বা বেনিয়া গোষ্ঠি বলার সুযোগ নেই।

একটা খেলা বিশ্ব জুড়ে আরো বিস্তৃত হচ্ছে মানে হলো, বহু তরুণ এখন এই খেলাকে লক্ষ্য করে জীবন সাজানোর চিন্তা করবে। খেলাটা না থাকলে হয়তো ওই তরুণ বেকার থাকতো কিংবা খারাপ পথে পা বাড়াতো। কিন্তু ক্রিকেট তার জন্য খুলে দিলো সম্ভাবনার নতুনতম দুয়ার

আপাতত ২০২৩ সাল পর্যন্ত আইসিসির নানা পরিকল্পনা ঠিক করা আছে। তার পরের পরিকল্পনায় হয়তো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দল সংখ্যা বেড়ে হয়ে যাবে ত্রিশের বেশি। ক্রিকেটের সত্যিকারের বিশ্বায়ন তখন পাবে নতুন রূপ।

এ বছরের জুলাই থেকেই আইসিসির সব সদস্য দেশের নারী জাতীয় দল আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলার মর্যাদা পাবে। পুরুষ দল পাবে আগামী বছরের প্রথম দিন থেকে। মানে আগামী বছর থেকে ক্রিকেট আর মাত্র কয়েকটা দেশের খেলা থাকবে না। হয়ে উঠবে বিশ্বেরই খেলা।
ভাবতে ভালো লাগছে

নতুন যে দেশগুলো টি-টোয়েন্টি খেলার মর্যাদা পেতে যাচ্ছে তারা হলো-
আফ্রিকা: বতসোয়ানা, ক্যামেরুন, গাম্বিয়া, ঘানা, কেনিয়া, লেসোথো, মালাউই, মালি, মরক্কো, মোজাম্বিক, নামিবিয়া, নাইজেরিয়া, রাওয়ান্ডা, সেশেল, সিয়েরা লিওন, সেইন্ট হেলেনা, সোয়াজিল্যান্ড, তানজানিয়া, উগান্ডা, জাম্বিয়া।

আমেরিকা: আর্জেন্টিনা, বাহামাস, বেলিজ, বার্মুডা, ব্রাজিল, কানাডা, কায়মান আইল্যান্ড, চিলি, কোস্টারিকা, ফকল্যান্ড আইল্যান্ড, মেক্সিকো, পানামা, পেরু, সুরিনাম, টার্কস অ্যান্ড কেইকোস আইল্যান্ডস।

এশিয়া: বাহরাইন, ভুটান, চায়না, ইরান, কুয়েত, মালয়শিয়া, মালদ্বীপ, মায়ানমার, কাতার, সৌদি আরব, সিঙ্গাপুর ও থাইল্যান্ড।
এশিয়া প্যাসিফিক: কুইক আইল্যান্ডস, ফিজি, ইন্দোনেশিয়া, জাপান, পাপুয়া নিউগিনি, ফিলিপাইন, সামোয়া, দক্ষীণ কোরিয়া, ভানুয়াটু।

ইউরোপ: অস্ট্রিয়া, বেলজিয়াম, বুলগেরিয়া, ক্রোয়েশিয়া, সাইপ্রাস, চেক রিপাবলিক, ডেনমার্ক, ইস্টোনিয়া, ফিনল্যান্ড, ফ্রান্স, জার্মানি, জিব্রাল্টার, গ্রিস, গার্নসি, হাঙ্গেরি, আইল অব ম্যান, ইসরায়েল, ইতালি, জার্সি, লুক্সেমবার্গ, মাল্টা, নরওয়ে, পর্তুগাল, রোমানিয়া, রাশিয়া, সার্বিয়া, স্লোভেনিয়া, স্পেন, সুইডেন ও তুরস্ক।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন