বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ ০৯:২৬:১১ পিএম

তিরস্কার নয় বহিষ্কার চাই, মানববন্দনে শিক্ষার্থীরা

শিক্ষাঙ্গন | সোমবার, ৩০ এপ্রিল ২০১৮ | ০৬:৩০:০৩ পিএম

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি)নাট্যকলা বিভাগের দুই ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে ওই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আব্দুল হালিম প্রামানিকের বহিস্কারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে সাধারন শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (৩০ এপ্রিল) সকাল ১০ টায় বিশ্ববিদ্যালয় শহীদ মিনারের সামনে মানববন্দন করে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এসময় অভিযুক্ত শিক্ষকে বহিস্কারের দাবি জানায় শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা বলেন, একজন শিক্ষক কিভাবে তার মেয়ের সমতুল্য শিক্ষার্থী সাথে এ রকম আচরণ করতে পারে। আর প্রশাসন কিভাবে সামান্য তিরস্কার শাস্তিদান করে। এভাবে দিনের পর দিন অভিযুক্ত ব্যক্তিরা সামান্যতম সাজা পাচ্ছে বলে দেশে যৌন হয়রানি বেড়ে যাচ্ছে। আমরা এই বিচার মানি না। পুনরায় তদন্ত্র কমিটি গঠন করে এর সঠিক বিচার করা হোক।

মানববন্দন শেষে শিক্ষার্থীরা সাংবাদিকদের সামনে ৬টি দাবি উত্থাপন করেন। দাবিগুলো হচ্ছে: ১.পুনরায় তদন্ত কমিটি গঠন ২.অভিযুক্ত শিক্ষককে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ী বহিষ্কার ৩.দুই ছাত্রীকে ভয়ভীতি দেখানো ও হয়রানি বন্ধ করা ৪. নিপীড়নকারীর যোগদান স্থগিত রাখা ৫. সকল ছাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা এবং ৬. আগামী মাসের ৩ তারিখের মধ্যে প্রশাসনের সুস্পষ্ট বক্তব্য প্রদান।

উল্লেখ্য যে, গত বছরের ১৭ ই ফেব্রুয়ারি আব্দুল হালিম প্রামানিকের বিরুদ্ধে যৌন নিপিড়নের অভিযোগ সাময়িক বহিষ্কার করা হয় এবং প্রথম তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এর চার মাস পরে দ্বিতীয় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। দুই তদন্ত কমিটির বিপরীতে রিপোর্ট প্রদান করে প্রশাসনের কাছে। ওই রিপোর্টের ভিত্তিতে গত ৭৭তম সিন্ডিকেট সভায় ওই শিক্ষককে তিরস্কার এবং দুই বছর পদন্নোতি বিলম্বিত করার সিদ্ধান্ত নেয় প্রশাসন।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন