শনিবার, ২৬ মে ২০১৮ ০৭:৪৬:০৪ পিএম

‘২১টি সেঞ্চুরি, সবথেকে বেশি সংখ্যক ছয়’- অপমানের জবাব দিয়ে আরও যা বললেন গেইল

খেলাধুলা | সোমবার, ৩০ এপ্রিল ২০১৮ | ০৭:৩৮:২২ পিএম

টি টোয়েন্টি ক্রিকেটের ফেরিওয়ালা হিসেবেই ক্রিস গেইল পরিচিত বিশ্বের কাছে। গেইলের উপস্থিতি একটি দলের ব্যাটিং শক্তিকে বৃদ্ধি করে তোলে কয়েকগুণ। কিন্তু সবথেকে আশ্চর্যজনক বিষয় সেই গেইলই কিনা আইপিএলের নিলাম অনুষ্ঠানে দুই বার ছিলেন অবিক্রীত!

এরপর যদিও তৃতীয়বারের ডাকে তাঁকে দলে ভেড়ায় কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব দলটি। উপেক্ষার এই জবাব দেয়ার জন্য হয়তো তখন থেকেই তক্কে তক্কে ছিলেন এই ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং ঝড়। গত ১৫ই এপ্রিল চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে আইপিএল ১১ তে নিজের প্রথম ম্যাচে ব্যাট হাতে ৩৩ বলে ৬৩ রানের ঝড়ো এক ইনিংস খেলেন গেইল।

এরপরের ম্যাচেই সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের বিপক্ষে চার ছক্কার পসরা সাজিয়ে তুলে নেন এবারের আসরে নিজের প্রথম সেঞ্চুরি। সুতরাং নিলামে অবিক্রীত থাকায় যে ভালোই অপমানিত বোধ করেছেন সেটাই যেন প্রমাণ করে ছাড়লেন ক্রিস গেইল।

টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সম্প্রতি গেইল জানিয়েছেন নিলামে শুরুতে তাঁকে কেউ দলে না নেয়ায় বেশ অবাক হয়েছিলেন তিনি। পাশাপাশি নিজের সামর্থ্য সম্পর্কে ভালোভাবেই অবগত গেইল বলেও জানান। ক্যারিবিয়ান এই তারকা ব্যাটসম্যান বলেন,

‘আমার জন্য এটি আসলেই অনেক অবাক করা বিষয় যে কোনো দল আমাকে নেয় নি। আমি জানি না পেছনে কি হয়েছে, কিন্তু আমি এটা বুঝতে পেরেছি যে এমনটা হতে পারে। যা হওয়ার সেটাই হয়েছে। তবে ভালোই হয়েছে, আমি এখান থেকেই ঘুরে দাঁড়িয়েছি।’

পাঞ্জাবের হয়ে খেলার সুযোগকে অনেক বড় করেও দেখছেন গেইল। এখন পর্যন্ত দলটির সাথে দারুণ সময় কাটিয়েছেন বলেও জানালেন তিনি। গেইলের ভাষ্যমতে,

‘যেমনটি আমি বলেছি, কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে খেলতে পারা অনেক বড় সুযোগ আমার জন্য এবং এখন পর্যন্ত আমি অনেক ভালো সময় কাটিয়েছি। যদিও এমনটাই হতো, আপনি জানেন। কিং গেইলের কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে খেলাই ভাগ্যে ছিলো।’

গত আইপিএলে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর হয়ে খেলেছিলেন গেইল। কিন্তু ব্যাঙ্গালুরুর জার্সিতে ৩০০০ রান করলেও এবারের আইপিএলে আর তাঁকে দলে রাখেনি ফ্র্যাঞ্চাইজিটি।

গেইলের বদলে উল্টো তারা রিটেইন করেছে এবি ডি ভিলিয়ার্স, ভিরাট কোহলি এবং সরফরাজ খানকে। যদিও এর আগে গেইলকে রাখার কথা নিজেরাই জানিয়েছিলো তারা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পিঠ টান দিয়েছে তারা। তবে নিজেকে কোহলি এবং ডি ভিলিয়ার্সদের থেকেও ব্যাঙ্গালুরুর সবথেকে বড় তারকা বলে দাবি করেছেন গেইল। তিনি বলেন,

‘আমি তাদের সবথেকে বড় তারকা ছিলাম। সেই দিক থেকে আমার জন্য এটি হতাশাজনক কারণ, তারা আমাকে ডেকেছিলো। তারা আমাকে তাদের দলে চেয়েছিলো এবং আমাকে বলা হয়েছিলো রিটেইন করা হবে। কিন্তু তারা এরপর আর কখনো আমার সাথে যোগাযোগ করেনি। সুতরাং এর মাধ্যমে আমি বুঝেছি যে তারা আমাকে আর ডাকবে না’।

গত বিপিএল আসরে চ্যাম্পিয়ন রংপুর রাইডার্সের হয়ে দারুণ খেলেছিলেন ক্রিস গেইল। রংপুরের জার্সিতে দুটি সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন তিনি। নিজেকে যাচাই করার ক্ষেত্রে সেই পরিসংখ্যানই তুলে ধরেছেন ক্যারিবিয়ান এই হার্ডহিটার। তাঁর ভাষ্যমতে,

‘আমি এর আগেও বলেছি আমি কারো সাথে বিরোধে জড়াতে পারবো না। আমি মনে করি আমি একটি দুর্দান্ত সিপিএল এবং বিপিএল আসর পার করে এসেছি- যেখানে আমি দুটি সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলাম রংপুর রাইডার্সের হয়ে।

পরিসংখ্যান কখনো মিথ্যা বলে নাঃ ২১টি সেঞ্চুরি, সবথেকে বেশি সংখ্যক ছয়। এরপরেও যদি ক্রিস গেইল ব্র্যান্ডকে তুলে ধরতে না পারে, আমি জানি না তাহলে কোনটি পারবে।’

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন