বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ২০১৮ ১০:০৮:০২ এএম

ভারতে মসজদি বানালো হন্দিু ও শখি র্ধমাবলম্বীরা

আন্তর্জাতিক | মঙ্গলবার, ১ মে ২০১৮ | ০২:৩৯:২৩ পিএম

ভারতে কাছাকাছি সময় বভিন্নি র্ধমাবলম্বীদরে মধ্যে র্ধমীয় অসহষ্ণিুতা এতটাই চরমে উঠছেে যে সখোনে বশে কবার তা সহিংস রূপ নযি়ছে।

কিন্তু পাঞ্জাবে মুম নামরে এক প্রত্যন্ত গ্রামে দখো গছেে ভন্নি কছিু।

নাজমি রাজা খান নামে একজন মুসলমি রাজমস্ত্রিি সখোনে একটি শবিরে মন্দরি নর্মিাণে কাজ করছলিনে।

একটা কথা তনিি প্রায়ই ভাবতনে। আর তা হল, তনিি একজন মুসলমি হয়ে হন্দিুদরে জন্য মন্দরি বানাচ্ছনে।

অথচ তার জন্য নামাজ পড়ার কোন মসজদি ধারে কাছে নইে।

৪০ বছর বয়সী নাজমি বলছলিনে, "আত্মীয়রা বডে়াতে এলে তাদরে জন্য বষিয়টা খুব একটা আনন্দরে ছলি না"

সখোনে চারশো ঘর মুসলমিরে বাস। একদনি কথাটা তনিি তাদরে কাছে তুললনে।

কন্তিু র্অথরে অভাবে মসজদি বানানো তাদরে পক্ষে সম্ভব নয়। তাদরে বশেরিভাগই মজুর শ্রণেীর।

অন্যদকিে সখোনকার চার হাজার মতো শখি ও হন্দিুদরে অবস্থা তাদরে চযে়ে ভালো।

মন্দরিরে কাজ যখন শষে হয়ে আসছে এরকম সময়ে একদনি নাজমি হঠাৎ এক কাজ করে বসলনে।

মন্দরিরে তদারকরি দায়ত্বিে থাকা র্কমর্কতাকে বলে বসলনে, "আপনারা হন্দিুরা শীঘ্রই একটা নতুন মন্দরি পাবনে। পুরনো একটা মন্দরিও আপনাদরে আছ।ে কন্তিু আমাদরে মুসলমিদরে জন্য র্প্রাথনার কোন যায়গা নইে। একটা মসজদি বানানোর টাকা বা জমি কছিুই আমাদরে নইে। কছিু জমি কি আমাদরে দবেনে?"

সপ্তাহ-খানকে পর এই প্রশ্নরে জবাব পলেনে নাজমি রাজা খান।

মন্দরি র্কতৃপক্ষ মসজদিরে জন্য নয়শ স্কয়ার ফটি জমি দযি়ে দলিো।

নাজমি রাজা বলছনে, "আমি আনন্দে আত্মহারা বোধ করছলিাম। কৃতজ্ঞতা প্রকাশরে ভাষা খুঁজে পাচ্ছলিাম না।"

দু মাস ধরে নাজমি রাজা ও অন্য শ্রমকিরা মলিে বানালনে মসজদি।

হন্দিু ও শখিরাও তাতে যোগ দলিনে। র্অথ দযি়ে সহায়তায় এগযি়ে এলো শখি সম্প্রদায়রে মানুষজন।

মসজদি বানাতে হন্দিুদরে জমি আর শখিদরে টাকা দযে়া নযি়ে কোন র্ধমরে কারো কোন ক্ষোভ নইে সখোন।ে

ভারতে হন্দিু উগ্রবাদীদরে প্রসারে পরস্থিতিি এমন হয়ছেে যে সখোনে হন্দিু মুসলমি সর্ম্পকে আস্থার খুব অভাব দখো দযি়ছে।

এমন পরস্থিতিতিে র্ধমীয় সম্প্রীতরি এক দারুণ নর্দিশন হয়ে উঠছেে মুম নামরে গ্রামট।ি

সখোনে মসজদিরে গা ঘঁেষে রয়ছেে হন্দিুদরে শবি মন্দরি আর শখিদরে গুরুদুয়ারা।

নাজমিরে বন্ধু ভারত র্শমা নামরে এক স্কুল শক্ষিক বলছনে, "ভাগ্যসি আমাদরে এখানে কোন রাজনীতবিদি নইে যে আমাদরে মধ্যে বভিদে তরৈি করব।

সূত্র: ববিসিি

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন