বুধবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৮ ১২:২৬:৫৮ এএম

আমার রাজনীতি দারিদ্র, বঞ্চিত মানুষের জন্য: প্রধানমন্ত্রী

জাতীয় | মঙ্গলবার, ১ মে ২০১৮ | ০৬:৩২:৪০ পিএম

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, আমার রাজনীতি দারিদ্র বঞ্চিত অতিসাধারণ মানুষের জন্য। যা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাকে শিখিয়েছেন। দারিদ্র সাধারণ মানুষের ভাগ্য উন্নয়নেই আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আজ বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে মে দিবসের এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী একথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, সরকার শিল্পোন্নয়নের পাশাপাশি শ্রমিকের ভাগ্যোন্নয়নেও কাজ করছে। আমি বঙ্গবন্ধুর কন্যা। তিনি যেভাবে মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে নিজের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন, আমিও দেশের মানুষের জন্য কাজ করছি। আমার রাজনীতিই শ্রমিক শোষিত মেহনতি মানুষের জন্য।

তিনি বক্তৃতার শুরুতেই বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ করে বলেন, দেশ স্বাধীন হওয়ার পর বঙ্গবন্ধু পরিত্যক্ত সব কলকারখানা চালু করেছিলেন। তিনি মে দিবসের ছুটি ঘোষণা করেন। শোষিত, বঞ্চিত ও শ্রমিকের ভাগ্যোন্নয়নে নিজের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন তিনি।

তার পথ অনুসরণ করে বর্তমান সরকারও কাজ করছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, শিল্প প্রতিষ্ঠানে যেন শান্তি থাকে, শ্রমিকরা যেন উৎপাদনমুখী হয় এবং পোশাক খাতের যেন উন্নয়ন হয়, সেজন্য সরকার কাজ করে যাচ্ছে। নারী শ্রমিকদের জন্য যত কিছু দরকার আমরা করেছি। বন্ধ থাকা শিল্প কারখানা পর্যায়ক্রমে চালু হবে। আমরা দেশের খেটে খাওয়া ও মেহনতি মানুষের জন্য কাজ করছি। তেলে মাথায় তেল দিতে আসিনি।

পোশাখ খাতের দু’একটি দুর্ঘটনার জন্য দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের যেন আর এমন অবস্থায় পড়তে না হয়, সে লক্ষ্যে শ্রমিকের অধিকার নিশ্চিত করতে সরকার কাজ করছে।

তিনি আরো বলেন, কিছু হলেই দেশের বাইরে গিয়ে বদনাম করা যে দেশের ভাবমূর্তির জন্য কতোটা ক্ষতিকর, তারা তা বোঝেন না। শুধু নালিশিই করেন। আমি একটা কথা বলে দিতে চাই, বাইরে কারও কাছে নালিশ করে কোনও সুবিধা হবে না।।

বিএনপির সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, রমজানে শ্রমিকদের বুকে গুলি চালিয়েছিল বিএনপি। এসময় বিদেশ গমনেচ্ছু কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, দালালের খপ্পরে পড়ে কেউ যেন সোনার হরিণ ধরতে গিয়ে বিপদে না পড়েন, সে দিকে খেয়াল রাখতে হবে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন