শুক্রবার, ১৭ আগস্ট ২০১৮ ১০:৪৬:১৯ পিএম

সুষ্ঠু নির্বাচনের লক্ষ্যে তিন পদক্ষেপের পরামর্শ

রাজনীতি | বুধবার, ২ মে ২০১৮ | ০৭:২৭:০৯ পিএম

তিনটি পদক্ষেপ নিলে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে বলে মনে করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী। এগুলো হচ্ছে- নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার, সংসদ বিলুপ্ত করা এবং নির্বাচনে সেনা মোতায়েন।

বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক প্রতিবাদ সভায় আমির খসরু মাহমুদ বলেন, ‘বাংলাদেশে সুষ্ঠু নির্বাচনের পেছনে অন্তত তিনটি জিনিস আমার চোখে পড়ে, যেগুলো সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য একটা পথ দেখিয়েছিল, একটা হচ্ছে নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার। দ্বিতীয়টা হচ্ছে, সংসদ বিলুপ্ত করে একটি ইন্টেরিম বা নিরপেক্ষ সরকার গঠন করা। তৃতীয়টা হচ্ছে, বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে নির্বাচনকালে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীতে প্রতিরক্ষা বাহিনীর অন্তর্ভুক্তি।’

তিনি বলেন, ‘এই তিনটি বিষয় তারা (আওয়ামী লীগ) আইন করে বাতিল করে দিয়েছে। এই তিনটা স্পেস ছাড়া লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডের কথা বলে লাভ নেই।’

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নির্বাচনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোকে নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে, অভিযোগ করে দলটির অন্যতম এই নীতিনির্ধারক বলেন, তারা নির্বাচনী আইনগুলোসহ সংবিধানও তাদের সুবিধামতো পরিবর্তন করেছে।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ দলটির নেতাদের মুক্তির দাবিতে এ প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে ‘ন্যাশনালিস্ট রিসার্চ ফাউন্ডেশন’ নামের একটি সংগঠন।

আমির খসরু মাহমুদ বলেন, আজ দেশে গণতান্ত্রিক স্পেস নেই। আইনের শাসন, মানবাধিকার, গণমাধ্যমের স্বাধীনতাসহ নাগরিকের যত অধিকার আছে সেসব গণতান্ত্রিক স্পেস, রাজনৈতিক স্পেস কমপ্লিটলি অনুপস্থিত।

খালেদা জিয়া কারান্তরীণ হওয়ায় দেশের গণতন্ত্র আজ নাজিমুদ্দিন রোডে বন্দি রয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ডা. এ কে এম মহিউদ্দিন ভূইয়া মাসুমের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় আরো বক্তব্য রাখেন- আমার দেশ পত্রিকার সম্পাদক ও সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান, বিএনপি নেতা মীর সরফত আলী সফু, অধ্যাপক ড. মো. আল মোজাদ্দেদী আল ফেসানী, গোলাম সরোয়ার, ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, আব্দুল কাদের ভূইয়া প্রমুখ।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন