রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮ ০৯:৪৪:৪১ এএম

‘টাকা দিলেই সন্তানের প্রতি দায়িত্ব শেষ হয় না’

জাতীয় | বৃহস্পতিবার, ৩ মে ২০১৮ | ০৩:৪৭:৫৬ পিএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, অনেক অর্থশালী সন্তানের হাতে একগুচ্ছ টাকা ধরিয়ে দিয়েই পিতা-মাতার দায়িত্ব শেষ করতে চান। এভাবে কিন্তু সন্তান মানুষ করা যায় না। বাবা মাকে খবর রাখতে হবে তার ছেলে-মেয়ে কোথায় যায়।

বৃহস্পতিবার (৩ মে) রাজধানীতে র‌্যাবের ১৪ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজনে নানা বিষয়ে বলতে গিয়ে জঙ্গিবাদ এবং মাদকে তরুণদের সম্পৃক্ততার কথাও তোলেন প্রধানমন্ত্রী। আর সন্তানদের ওপর নজরদারির বিষয়টিও তোলেন তিনি।

‘আমাদের অনেক অর্থশালী, বিত্তশালী মানুষ আছে, যারা টাকার পেছনে ছুটে বেড়ায়। আর ছেলে মেয়ে কোনও কিছু দাবি করলে হাতে একগুচ্ছ টাকা ধরিয়ে দিয়ে মনে করে সন্তানের প্রতি বিরাট দায়িত্ব পালন করে ফেলল।’

‘কিন্তু সন্তান কোথায় যাচ্ছে, কী করছে সেদিকে খবর রাখারও তাদের সময় নেই। অর্থ উপার্জনের পথে তারা উন্মাদের মতো ছুটে চলে।’

‘ফলে তাদেরই সন্তান, যাদের চাওয়া পাওয়ার কিছু বাকি নেই, সবই পাচ্ছে, তারপরও তারা সন্ত্রাসের পথে চলে যাচ্ছে। মাদকাসক্ত হচ্ছে, জঙ্গিবাদের পথে চলে যাচ্ছে।’

অভিভাবকদের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকেও সচেতন হওয়ার তাগিদ দেন প্রধানমন্ত্রী।

বলেন, ‘প্রত্যেকটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তাদেরকেও লক্ষ্য রাখতে হবে কোনো ছেলে মেয়ে যেন কোনো মতে বেশিদিন অনুপস্থিত না থাকে। থাকলে কেন থাকছে, কী কারণে, কোথায় আছে, অসুস্থ কি না, সে খবরটা প্রত্যেকটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে নিতে হবে। যাতে করে ছেলে মেয়ে জঙ্গি, সন্ত্রাস, মাদকাসক্ত না হয়, এই বিষয়েও সচেতনতা সৃষ্টি করা একান্ত দরকার।’

‘কোনো পরিবারে যদি মাদকাসক্ত সন্তান থাকে, তাহলে সে পরিবারের কাছে এর থেকে বড় দুঃখের কিন্তু আর কিছু হতে পারে না। কাজেই এর থেকে যেন আমাদের ছেলে মেয়েরা দূরে থাকে, তার ব্যবস্থা ব্যাপকভাবে নিতে হবে।’

র‌্যাবের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বাহিনীটির নানা কর্মকাণ্ডের প্রশংসা করে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নয়ন এবং মাদকের বিরুদ্ধে জঙ্গিবিরোধী অভিযানের মতো কঠোর অভিযানের নির্দেশ দেন শেখ হাসিনা।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন