বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ২০১৮ ০৭:৪১:২৪ পিএম

এক বছরে চিনির দাম কমেছে ২৪ শতাংশ

অর্থনীতি | বৃহস্পতিবার, ৩ মে ২০১৮ | ০৪:২৫:১০ পিএম

বিশ্বব্যাপী খাদ্যের দাম টানা বাড়ছে। গত বছরের শেষ মাসে একটু কমলেও জানুয়ারি থেকে টানা ঊর্ধ্বমুখী দাম। তবে উল্টোদিকে চিনি ও ভোজ্য তেলের দাম। গেলো এপ্রিলে এই দুই পণ্যের দাম বেশ কমেছে।

জাতিসংঘের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) সবশেষ প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠেছে। সংস্থাটি বলছে, এই দুই পণ্যের দাম কম হওয়ার কারণে গেলো এপ্রিলে বিশ্ববাজারে সার্বিকভাবে খাদ্যপণ্যের দাম তেমন বাড়েনি।

তবে দানা জাতীয় খাদ্যশস্য ও দুগ্ধ জাতীয় পণ্যের দাম বাড়তি থাকায় এপ্রিলের সার্বিক সূচকে প্রভাব ফেলেছে।

এফএওর ফুড ইনডেক্স অনুযায়ী, এপ্রিলে খাদ্য সূচক হয়েছে গড়ে ১৭৩ দশমিক ৫ পয়েন্ট। যা মার্চ থেকে সামান্য বেশি। তবে গেলো বছরের একই সময়ের থেকে ২ দশমিক ৭ শতাংশ বেশি।

বিশ্বব্যাপী ৫ ধরনের পণ্য নিয়ে গবেষণা করে প্রতিমাসে প্রতিবেদন প্রকাশ করে এফএও। এ পণ্যের মধ্য রয়েছে- দানা জাতীয় খাদ্যশস্য, দুধ, মাংস, ভোজ্য তেল ও চিনি।

ওই প্রতিবেদনে দেখা যায়, দানাজাতীয় খাদ্য ও দুগ্ধজাত পণ্যের দাম বেড়েছে, অন্যদিকে চিনির দাম কমেছে আরও। চাপে আছে ভোজ্যতেল ও মাংসের দাম।

এপ্রিলে চিনির দাম কমেছে মার্চের তুলনায় ৪ দশমিক ৮ শতাংশ আর গেলো বছরের একই সময়ের চেয়ে কমেছে ২৪ শতাংশের মতো। ডিসেম্বর থেকেই চিনির এই নিম্নমুখী ধারা বজায় আছে।

জাতিসংঘের এ সংস্থা মনে করছে, চিনির সরবরাহ ভালো থাকায় বিশেষ করে ভারত ও থাইল্যান্ডে রেকর্ড উৎপাদন হওয়ায় এই ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন