বুধবার, ১৮ জুলাই ২০১৮ ১০:২১:২৩ পিএম

অনুমতি ছাড়াই সড়কের ১৪ গাছ কাটলেন চেয়ারম্যান

জেলার খবর | নীলফামারী | শুক্রবার, ৪ মে ২০১৮ | ১১:০৮:১২ এএম

নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার বাঙ্গালীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শ্রী প্রণোবেশ চন্দ্র বাগচী ইউনিয়নের বিভিন্ন সড়কের প্রায় লক্ষাধিক টাকার ১৪টি গাছ কেটে নিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। মাদরাসা, অষ্টপ্রহরসহ বিভিন্ন সামাজিক কাজে দেয়ার কথা বলে তিনি এসব গাছ প্রশাসনের কোনো রকম অনুমতি না নিয়েই কেটেছেন। এতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এলাকাবাসী।

সরেজমিনে দেখা যায়, ইউনিয়নের বাদিয়ার মোড় এলাকায় ডালিয়া ক্যানেল সংলগ্ন রাস্তার দুটি ইউক্যালিপটাস গাছ, পীরপাড়ার ৪টি গাছ, চৌমুহনী থেকে লক্ষণপুর স্কুলগামী সড়কের ৫টি এবং শাইল্যার মোড় এলাকার ৪টি গাছ কাটা হয়েছে। এগুলোর মধ্যে ইউক্যালিপটাস, মেহগনি, কড়াই ও নিম গাছ ছিল। যার মধ্যে মাত্র ২টি গাছ ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে পাওয়া গেছে।

এ ব্যাপারে গ্রাম পুলিশ মতিউলের সঙ্গে কথা হলে তিনি জানান, চেয়ারম্যানের নির্দেশে মোট ১৪টি গাছ কাটা হয়েছে। গাছগুলো মরা ও ঝড়ে ভাঙা ছিল।

তবে এলাকাবাসীর অভিযোগ, মাত্র ২-৩টি গাছ কিছুটা শুকনা ছিল। অন্য গাছগুলো সতেজ ও অক্ষত ছিল। কিন্তু চেয়ারম্যান শুকনা গাছের অজুহাতে সবগুলো গাছ কেটে আত্মসাৎ করেছেন। গাছের ডালপালাগুলো গ্রাম পুলিশ মতিউল, জাহাঙ্গীর, আমজাদ, নিখিল, জলিল ও কছি নিজেরা নিয়েছেন। এলাকাবাসী গাছ কাটতে বাধা দিলেও গ্রাম পুলিশ তা মানেনি। বরং তাদেরকে শাসিয়েছে।

বিষয়টি স্বীকার করে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শ্রী প্রণোবেশ চন্দ্র বাগচী বলেন, গাছগুলো শুকনো ছিল তাই এ ব্যাপারে উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করা হলেও তারা কোনো ভ্রুক্ষেপ না করায় আমি নিজ উদ্যোগে গাছগুলো কেটেছি।

সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. বজলুর রশিদ বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। এ ব্যাপারে খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন