শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮ ০৬:২১:৪৭ এএম

‘আমি তো কারো কাছে টাকা চাইনি’

বিনোদন | শুক্রবার, ৪ মে ২০১৮ | ০৫:১০:৫৮ পিএম

গত সোমবার বিকালে নগরীর শাহবাগে সড়ক দুর্ঘটনার কবলে পড়েন কবি ও অভিনেতা রিফাত চৌধুরী। এ সময় তার ডান হাতের তিনটি স্থানে ভেঙে যায়। পথচারীরা তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে হাতে প্লাস্টার ও প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেয়া হয়।

সেই সময় চিকিৎসক তাকে ৩ মে পুনরায় হাসপাতালে ভর্তি হতে বলেন। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন তিনি। তবে অনেক চেষ্টার পর কেবিনের ব্যবস্থা হয়েছে। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের পুরোনো ভবনের তৃতীয় তলায় ৪ নম্বর কেবিনে ভর্তি রয়েছেন এ অভিনেতা। আজ শুক্রবার এ তথ্য জানান রিফাত চৌধুরী।

রিফাত চৌধুরী বলেন, ‘এখন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বিছানায় পড়ে আছি। আজকে ছুটির দিন ডাক্তার দেখেননি। আগামীকাল হয়তো দেখবেন। গতকাল ভর্তি হয়েছি বিকাল পাঁচটায়। বিছানাই তো পাচ্ছিলাম না। গতকাল সকাল সাড়ে ৮টা থেকে চেষ্টা-তদবির করে সর্বশেষ কেবিনের ব্যবস্থা হয়েছে। হাতে অস্ত্রোপচার করাতে হবে’

অস্ত্রোপচারের তারিখ পেয়েছেন কিনা জানতে চাইলে রিফাত চৌধুরী বলেন, ‘না, এখনো পাইনি। আসলে পাওয়ারফুল কেউ যদি আমার বিষয়টি দেখতেন তবে অপারেশনটা তাড়াতাড়ি করা যেত। পাশের অন্যান্য রোগীদের সঙ্গে আলাপ করে জানলাম, দীর্ঘ দিন ধরে তারা ভর্তি হয়ে আছেন কিন্তু আজকাল করে অপারেশনের তারিখ পাচ্ছেন না। আমার হাতে অসম্ভব ব্যথা। অপারেশন না হওয়া পর্যন্ত এ ব্যথা কমবে বলে মনে হচ্ছে না। কিন্তু কোনো লোকই তো খুঁজে পাচ্ছি না। ডা. এজাজ ভাইকে ফোন করেছিলাম। কিন্তু তিনিও তো কিছু করলেন না। এজাজ ভাই যদি বলে দিতেন, খুব ভালো হতো।’

আপনাকে দেখতে শোবিজ অঙ্গনের কেউ গিয়েছিলেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘‘কচি ভাইকে ছাড়া মিডিয়া অঙ্গনের আর কেউ আসেনি। দুর্ঘটনার পর রাতে ডা. এজাজ ভাইকে ফোন দিয়ে সব জানিয়েছিলাম। তিনি বললেন, ‘আপনি চিন্তা করবেন না, বৃহস্পতিবার যেহেতু ভর্তি হওয়ার তারিখ দিয়েছে সুতরাং আপনি ওইদিন হাসপাতালে চলে আসবেন। আমার লোক আপনাকে ফোন দেবে এবং প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা করে দেবে।’ সে ফোন আজকে পর্যন্ত আসেনি।’’

অনেকটা আক্ষেপ করেই রিফাত চৌধুরী বলেন, ‘আমি তো কারো কাছে টাকা চাইনি, শুধু একটা ফোন দেবে সেটা তো অন্তত আশা করতে পারি। এজাজ ভাই যদি বিষয়টি বলে দিতেন ভালো হতো। আজকাল রেফার ছাড়া তো কোনো কাজই হয় না। খুব করুণ অবস্থায় আছি।’

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন