মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১০:৫৯:০৯ পিএম

রোনালদোর সঙ্গে খেলতে উদগ্রীব নেইমার!

খেলাধুলা | শনিবার, ৫ মে ২০১৮ | ১০:৪৯:১২ পিএম


২২২ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে হুট করেই বার্সেলোনা ছেড়ে দিয়ে ফরাসি ক্লাব পিএসজিতে যোগ দিয়েছিলেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার। হয়ে গেলেন বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলার; কিন্তু বার্সা থেকে যেই না নেইমার পিএসজিতে পা রেখেছেন, তখন থেকেই তীব্র গুঞ্জন ডালপালা গজাতে শুরু করে। রিয়াল মাদ্রিদে পাড়ি জমাতেই পিএসজিতে নাম লিখেছেন তিনি।

এরই মধ্যে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডেই পিএসজির মুখোমুখি হয়ে যায় রিয়াল মাদ্রিদ। যেখানে সত্যিকারার্থেই শক্তি পরীক্ষা হয়ে যায় নেইমারের নতুন দল পিএসজির। দুই লেগেই পরাজয় বরণ করতে হয়েছিল ফরাসি ক্লাবটিকে। বিদায় নিতে হয়েছিল দ্বিতীয় রাউন্ড থেকেই। তখন থেকেই জোরালো হতে থাকে, পিএসজি ছেড়ে নেইমারের রিয়াল যোগদানের গুঞ্জন।

শুধু তাই নয়, নেইমার নাকি তখন ভালোভাবেই বুঝতে পেরেছিলেন নিজের মূল্য বোঝাতে পিএসজি তার জন্য আদর্শ ক্লাব নয়। তাকে স্পেনের বার্সেলোনা কিংবা রিয়াল মাদ্রিদেই যোগ দিতে হবে। এরই মধ্যে ইনজুরিতে পড়ে দীর্ঘদিন থাকলেন মাঠের বাইরে। পায়ে করালেন অস্ত্রোপচার। অবশেষে শুক্রবার তিনি ফিরে এলেন নিজের ক্লাব পিএসজিতে।

নেইমারের ফেরার পর যখন ফরাসি ক্লাবটি স্বস্তিতে থাকবে, তখন বোমা বিস্ফোরণের মত খবরটা দিয়ে বসলো মাদ্রিদ ভিত্তিক জনপ্রিয় স্পোর্টস দৈনিক মার্কা। তারা নিজেদের প্রথম পৃষ্ঠায় রোনালদো-নেইমারের একটি যৌথ ছবি দিয়ে লিখেছে, নেইমার নিজেই উদগ্রীব হয়ে রয়েছেন রোনালদোর সঙ্গে খেলার জন্য।

মার্কা এই রিপোর্ট প্রকাশ করার পর থেকেই তোলপাড় শুরু হয়ে গেছে। সত্যিই নেইমার এমন কোনো কিছু প্রকাশ করেছেন কি না জানার জন্য। মার্কা যেটাকে নিজেদের ফ্রন্ট পেজে ব্যানার স্টোরি করতে পারে, সেখানে তো শুধু গাল-গল্প থাকবে না।

তবে মার্কা লিখেছে, দুই বড় বড় তারকা যখন রিয়ালের একই শিবিরে একিভূত হয়ে যাবেন, তখন কিভাবে তারা এটাকে সামলাবে। ইতোমধ্যেই ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর নতুন চুক্তি এবং তার পারিশ্রমিক বাড়ানোর বিষয়টি নিয়ে আলাপ-আলোচনা চলছে। এর মধ্যে নেইমার যদি রিয়ালে আসেন এবং তার পারিশ্রমিক যদি স্বাভাবিকভাবেই রোনালদোর সমান কিংবা বেশি হয়ে যায়, তখন বিষয়টা নিয়ন্ত্রণ করা যাবে কি না।

মার্কার বক্তব্য, ‘যদিও রোনালদো এ ব্যাপারে কোনো নাক গলাবে না বলে মনে হচ্ছে না। তিনি নিজেও চান, নেইমারকে সঙ্গী হিসেবে পেতে। সে ক্ষেত্রে নেইমারকে কী পারিশ্রমিক দেয়া হলো কিংবা কত দিয়ে নিয়ে আসা হলো, সেটা নিয়ে তিনি মাথা ঘামাবেন না। নিজেরটা ঠিক থাকলেই তার চলবে। এর একটাই কারণ, নেইমারের আগমণে রিয়াল মাদ্রিদ অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠবে।’

তবে, বিষয়টা এখনও এত সোজা নয়। নেইমার যদি চানও রিয়াল মাদ্রিদে আসতে। সে ক্ষেত্রে তার চাওয়াকে সম্মান জানাতে হবে পিএসজি কর্মকর্তাদের। রিয়াল মাদ্রিদ যতি আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব দেয়, সেটাকেও সম্মান জানাতে হবে তাদের। একই সঙ্গে এখনও নেইমারের রিলিজ ক্লজ কত হবে সেটা ঠিক করেনি পিএসজি। এ বিষয়টাও কোথায় গিয়ে ঠেকে, সেটাও দেখার বিষয়।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন