মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮ ০৭:৩৫:০৬ পিএম

৯ দিন ধরে কানের ভেতর তেলাপোকা

আন্তর্জাতিক | রবিবার, ৬ মে ২০১৮ | ০১:৫০:৩১ পিএম

কানের ভিতরে একটি ঠাণ্ডা শিহরণে জেগে ওঠেন কেইটি হলি। ভেবেছিলেন, হয়তো একটি বরফের টুকরো তার বাম কান বেয়ে নিচে পড়ছে। তাই আতঙ্কিত না হয়ে, একটি তুলা দিয়ে কান পরিষ্কার করতে শুরু করেন তিনি। এ সময় কানের ভেতরে কিছুর নড়াচড়া অনুভব করেন হলি। তুলাটি বের করতেই তিনি পোকার পায়ের মতো কয়েকটি টুকরো দেখতে পান।

গতকাল শনিবার ওয়াশিংটন পোস্টকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে জর্ডানের বাসিন্দা হলি এভাবেই ঘটনার বর্ণনা দিচ্ছিলেন।

গত ১৪ এপ্রিলের ঘটনাটি বর্ণনা করতে গিয়ে হলি জানান, কান থেকে ওই টুকরাগুলো বের হওয়ার পর পরই স্থানীয় একটি হাসপাতালে স্বামীকে নিয়ে ছুটে যান তিনি। মাত্র ২০ সেকেন্ডের ব্যবধানে কান থেকে নার্স তেলাপোকার বাকি অংশ বের করে আনেন। এ সময় তাকে কিছু অ্যান্টিবায়োটিক ও কানের ড্রপ ব্যবহারের জন্য লিখে দেন চিকিৎসক।
ওয়াশিংটন পোস্টের বরাত দিয়ে এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, নয় দিন পার হওয়ার পরও হলি স্বাভাবিক হতে পারছিলেন না। প্রতিবারই হাই তোলার সময় কানে কিছুর অনুভূতি পেতেন তিনি। এমনকি কানের ড্রপও বাইরে বের হয়ে আসতো। হলি ভাবলেন, হয়তো কানের ভেতরের ময়লার পরিমাণ বেড়ে যাচ্ছে।

পরদিনই অন্য এক চিকিৎসকের কাছে ছুটে যান তিনি। এ সময় একটি চিমটা দিয়ে তেলাপোকার শরীরের অবশিষ্ট অংশ বের করে আনেন। নয় দিন পর্যন্ত মৃতপ্রায় তেলাপোকাটি হলির কানের ভিতরেই ছিল।

হলি বলেন, 'এমন ঘটনা নাকি প্রতিনিয়তই ঘটে বলে আমাকে আশ্বস্ত করেন তারা (চিকিৎসক)। এমনকি কোনো বিশেষজ্ঞের কাছে যেতেও বারণ করেন তারা।'
পতঙ্গবিজ্ঞানী কবি সাল বলেন, ‘তেলাপোকারা সর্বদা খাবারের সন্ধানে থাকে। হয়তো কানের ময়লা সেটির কাছে খাবারের মতো লেগেছিলো।’

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন