শনিবার, ২৬ মে ২০১৮ ০৯:৫৬:৩৪ এএম

রাজশাহীতে টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু

জেলার খবর | রাজশাহী | রবিবার, ৬ মে ২০১৮ | ১০:১১:২৩ পিএম

পবিত্র রমজান মাসকে সামনে রেখে রোববার থেকে রাজশাহীর খোলা বাজারে পণ্য বিক্রি শুরু করেছে রাষ্ট্রায়ত্ত বিপণন সংস্থা ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)।

সকাল থেকে নগরীর জিরোপয়েন্ট, নওদাপাড়া আমচত্বর ও শালবাগান পয়েন্টে তিনটি ট্রাকে করে শুরু হয়েছে পণ্য বিক্রি। রাজশাহীর বাইরে বগুড়া ও নাটোরের দুটি করে পয়েন্টে শুরু হয়েছে ট্রাক সেল।

রাজশাহী নগরীর পাঁচ পয়েন্টে ট্রাক সেল শুরুর কথা থাকলেও শুরু হয়েছে তিনটিতে। সকালে প্রতিটি পয়েন্টে দীর্ঘলাইনে দাঁড়িয়ে ক্রেতাদের রমজানে নিত্যব্যবহার্য চিনি, ছোলা, মশুর ডাল, সয়াবিন তেল ও খেজুর কিনতে দেখা গেছে।

ভ্রাম্যমাণ এসব বিক্রয় কেন্দ্রে প্রতিকেজি চিনি ৫৫ টাকায়, মশুর ডাল ৫৫ টাকায়, ছোলা ৭০ টাকায়, খেজুর ১২০ টাকায় এবং প্রতি লিটার সয়াবিন তেল ৮৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তুলনামূলক কম দামে পণ্য পেয়ে খুশি ক্রেতারা।

জানতে চাইলে টিসিবির রাজশাহী আঞ্চলিক অফিস প্রধান প্রতাপ কুমার জানান, নগরীর জনগুরুত্বপূর্ণ তিনটি পয়েন্টে ট্রাকে করে পণ্য বিক্রি শুরু হয়েছে।

সোমবার থেকে বাকি দুই পয়েন্ট বিনোদপুর ও লক্ষ্মীপুর পয়েন্টেও ট্রাক সেল শুরু হবে। বিভাগের অন্য জেলা সদরগুলোতেও দুটি করে ট্রাক সেল শুরু হবে শিগগিরই। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ট্রাকে পণ্য বিক্রি হবে। বিক্রি শেষ না হওয়া পর্যন্ত চলবে এ কার্যক্রম।

টিসিবির এই কর্মকর্তা আরও বলেন, ট্রাক সেলের বাইরে রাজশাহী নগরীতে ৭৯ জন এবং জেলায় ২৬ জন ডিলার টিসিবির পণ্য বিক্রি করবেন।

এছাড়া বগুড়ায় ৬৬ জন, নওগাঁয় ৪৮ জন, পাবনায় ৪২ জন, সিরাজগঞ্জে ৪০ জন, নাটোরে ২৮ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ২২ জন এবং জয়পুরহাটে সাতজন ডিলার টিসিবির পণ্য পৌঁছে দেবে ভোক্তাদের কাছে। পাশাপাশি বিভাগজুড়ে আরও ২০ জন সমবায় ডিলারের কাছেও মিলবে টিসিবির পণ্য। তবে প্রথম দিন হওয়ায় কোনো ডিলার পণ্য নিতে আসেননি বলে জানান তিনি।

তেল ও খেজুর ক্রয়ে সীমাবদ্ধতার কথা জানিয়ে আঞ্চলিক অফিস প্রধান বলেন, প্রত্যেক ক্রেতা সর্বোচ্চ ৫ কেজি সয়াবিন তেল ও ১ কেজি খেজুর কিনতে পারবেন।

জানা গেছে, দেশি ও আমদানি করা চিনির পাশাপাশি এবারও থাকছে পুষ্টি ব্র্যান্ডের সায়াবিন তেল। থাকছে অস্ট্রেলিয়া থেকে আমদানি করা ছোলা ও মশুর ডাল। আর ভালো মানের খেজুর এসেছে মধ্যপ্রাচ্য থেকে। তবে ডিলাররা যাতে ভেজাল পণ্য বিক্রি না করতে পারে সে ব্যাপারে কঠোর অবস্থানে কর্তৃপক্ষ।

এ বিষয়ে টিসিবির রাজশাহী আঞ্চলিক অফিস প্রধান প্রতাপ কুমার বলেন, এবারও টিসিবির পণ্য বিপণন কঠোর নজরদারির ভেতর থাকছে।

জেলা প্রশাসকের দফতর ও বাজার কর্মকর্তা আলাদাভাবে নজরদারি করবে। সংশ্লিষ্ট উপজেলায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারা দেখভাল করবেন এ কার্যক্রম। টিসিবির টিমও চালাবে কঠোর নজরদারি। পণ্য বিক্রিতে অনিয়ম পেলে জড়িতদের ডিলারশিপ বাতিলসহ আইনত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন