বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮ ০৮:৪১:৪৪ পিএম

লক্ষ্মীপুরে নারী ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হাসপাতালে ভর্তি

জেলার খবর | লক্ষীপুর | রবিবার, ৬ মে ২০১৮ | ১০:৪৫:২৬ পিএম

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে মহিমা আক্তার (৩৯) নামে এক নারী ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করা হয়েছে। এ ঘটনায় তার ছেলে হাসানুর রহমান বাদী হয়ে শনিবার রাতে ১১ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা করেন। জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে এলাকার দুই পক্ষের মারামারির খবর পেয়ে ঘটনাস্থল গিয়ে তিনি এ হামলার শিকার হন।

আহত মহিমা আক্তার উপজেলার বামনী ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত ১ ২ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য। তিনি নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

থানা পুলিশ জানায়, উপজেলার বামনীর শিবপুর গ্রামের জাহাঙ্গীর কবির ও হুমায়ুনদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলছে। এ নিয়ে আদালতে মামলা বিচারাধীন।

শনিবার জাহাঙ্গীর তার লোকজন নিয়ে হুমায়ুনের দখলে থাকা বাগানে ঢুকে গাছ কেটে ফেলে। এ সময় বাগানের চারপাশের তারের ভেড়া ভেঙে দেয়। বিষয়টি হুমায়ুন থানায় অবহিত করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়।

খবর পেয়ে ইউপি সদস্য মহিমা আক্তারও সেখানে যান। ঘটনার সময় জাহাঙ্গীর তার লোকজনকে নিয়ে হুমায়ুনের ওপর হামলা চালায়। একপর্যায়ে মহিমা আক্তারের মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন অংশে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করা হয়।

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে নোয়াখালী হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। এ ঘটনায় জাহাঙ্গীর কবির, মুকবুল ও রাজুসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করা হয়েছে।

মামলা বাদী হাসানুর রহমান বলেন, জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে এলাকার দুই পক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে আমার মা ঘটনাস্থল গেলে কিছু বুঝে ওঠার আগেই জাহাঙ্গীরের লোকজন হামলা করে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও রায়পুর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ ময়নাল হোসেন খাঁন বলেন, ইউপি সদস্যের ওপর হামলার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন