শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮ ০৬:৪৩:২৩ এএম

হয়ে গেলো মেসি-রোনালদোর জমজমাট লড়াই, ফলাফল কি?

খেলাধুলা | সোমবার, ৭ মে ২০১৮ | ০৯:১০:৪০ এএম

দারুণ রোমাঞ্চকর এক এল ক্লাসিকোর মহারণ দেখল ফুটবল দুনিয়া। কী ছিল না মৌসুমের শেষ এল ক্লাসিকোতে। ফুটবলপ্রেমীদের উত্তেজনায় ঠাসা একটা ম্যাচ উপহার দিলেন মেসি-রোনালদোরা। যদিও রবিবারের ম্যাচটা শেষ হয়েছে ২-২ ড্রয়ে।

স্প্যানিশ লা লিগার শিরোপা নিশ্চিত হয়ে গেছে আরও আগেই। ২০০৮ সালের পর এই প্রথম কোনো এল ক্লাসিকোর আগেই শিরোপা উৎসব-পর্বের সমাপ্তি। তারপরও বার্সেলোনা-রিয়াল মাদ্রিদের ম্যাচ বলে কথা। কাউকে ছাড় না দিয়ে দুর্দান্ত শুরু করে দুই দলই।

তবে ন্যু ক্যাম্পে স্বাগতিক বার্সেলোনাই প্রথম এগিয়ে যায়। সার্জি রবার্তোর পাস থেকে দারুণ এক গোলে স্বাগতিক সমর্থকদের আনন্দে ভাসার উপলক্ষ এনে দেন লুইস সুয়ারেজ। বার্সেলোনার উরুগুইয়ান স্ট্রাইকারের চলতি মৌসুমে সব ধরনের প্রতিযোগিতায় এটা ৩০তম গোল।

তবে গোলের উচ্ছ্বাস খুব বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারেনি বার্সেলোনা। তার চার মিনিট পরই যে রিয়াল মাদ্রিদকে সমতায় ফেরান দলের সেরা তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ক্রুস-বেনজেমা-রোনালদোর সম্মিলিত প্রচেষ্টায় বার্সার জালে বল জড়ায় রিয়াল মাদ্রিদ। এল ক্লাসিকোতে এটা রোনালদোর ১৮তম গোল। এই গোল করেই রিয়াল কিংবদন্তি আলফ্রেডো ডি স্টেফানোর সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডে ভাগ বাসন সিআর সেভেন।

প্রথমার্ধের বাকি সময়টাতে আর কোনো গোলের দেখা পায়নি স্প্যানিশ জায়ান্টদের কেউ। তবে উত্তেজনা ছিল চরমে। বিরতিতে যাওয়ার ঠিক আগেই লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয় সার্জি রবার্তোকে। রিয়ালের ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মার্সেলোকে বিপজ্জনকভাবে ট্যাকল করার মাশুল দিতে হয় তাকে।

বিরতির পর ন্যু ক্যাম্প যেন স্তব্ধ। একে তো দল সমতায়। তারপর লাল কার্ড দেখে দলকে ১০ জনের দলে পরিণত করে যান রবার্তো। তবে নিজেদের সমর্থকদের উচ্ছ্বাসের জোয়ারে ভাসানোর কাজটা এবার করেন বার্সার সেরা তারকা লিওনেল মেসি। প্রথমার্ধেই গোল করেছেন রোনালদো। এলএম টেনের গোল না করলে কী আর হয়। দ্বিতীয়ার্ধের ৫২ মিনিটেই কাতালানদের ২-১ গোলে এগিয়ে দেন বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার। চলতি মৌসুমে এটা তার ৩৩তম গোল। তখন অবশ্য মাঠে ছিলেন না ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। প্রথম গোল করার সময়ই আঘাত পাওয়া সিআর সেভেনকে ম্যাচের ৪৫ মিনিটেই যে বদল করে নেন জিদান। তার জায়গায় মাঠে নামান এসেনসিওকে।

দ্বিতীয়ার্ধের ৭২ মিনিটে স্প্যানিশ মিডফিল্ডার এসেনসিওর দারুণ সহযোগিতাতেই রিয়াল মাদ্রিদকে সমতায় ফেরান গ্যারেথ বেল। কিন্তু এর পরের সময়টাতে গোলের দেখা পায়নি কোনো দল।

এর ফলে ২-২ গোলের ড্রতেই শেষ হয় মৌসুমের শেষ এল ক্লাসিকো। আন্দ্রেস ইনিয়েস্তার ক্যারিয়ারের শেষ এল ক্লাসিকো ড্রয়ে শেষ হলেও নতুন এক ইতিহাস গড়ার আরও কাছাকাছি চলে এসেছে বার্সেলোনা। মৌসুমের প্রথম ৩৫ ম্যাচের সবকটিতেই অপরাজিত এখন কাতালান ক্লাবটি। বাকি থাকা তিন ম্যাচে না হারলেই লা লিগার ইতিহাসে প্রথম ক্লাব হিসেবে সবকটি ম্যাচে অপরাজিত থাকার অবিস্মরণীয় কীর্তি গড়বে আর্নেস্তো ভালভার্দের দল।

এই ম্যাচেও রেফারিং নিয়ে প্রশ্ন তুলেন সমর্থকরা। সার্জি রবার্তোর লাল কার্ড ছাড়াও দুই দলের খেলোয়াড়দের আরও আটটি হলুদ কার্ড দেখাতে বাধ্য হন ম্যাচ রেফারি আলেজান্দ্রো হার্নান্দেজ। যার মধ্যে রয়েছেন লিওনেল মেসিও। বলের লড়াই ছাড়াও শরীর দিয়েও যে লড়াই করার চেষ্টা করেছেন দুই দলের খেলোয়াড়রা এর মাধ্যমে ঠিক সেটাই যেন প্রমাণিত।

বার্সেলোনা-রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়াও স্প্যানিশ লা লিগায় এদিন মাঠে নেমেছিল আরও ছয় দল। আলাভেস ৩-০ গোলে হারিয়েছে মালাগাকে। এস্পানিওল ২-০ ব্যবধানে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদকে পরাজিত করে রীতিমতো চমকে দিয়েছে। অন্য ম্যাচে গেটাফে ১-০ গোলের জয় পেয়েছে লাস পালমাসের বিপক্ষে।

সূত্র : বিবিসি এবং মেইল অনলাইন

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন