শনিবার, ২১ জুলাই ২০১৮ ০১:৫৮:২৩ পিএম

স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ, দুধের সাধ ঘোলে মেটানো!

খোলা কলাম | রবিবার, ১৩ মে ২০১৮ | ০৩:২০:০৫ পিএম

মহাকাশে কৃত্রিম উপগ্রহ উৎক্ষেপণ বা নিক্ষেপ করা এখন পৃথিবীতে প্রায় পুরাতন বিষয় হয়ে গেছে।

সোভিয়েত ইউনিয়ন শুরু করেছিল সেই ৪৩ বছর কম ১০০ বছর আগে।

আমার উদ্বেগের বিষয় আগে পরে, তাও নয়।

আমি অবাক হচ্ছি বাঙালির আনন্দ দেখে. ২২৯ কোটি টাকা দিয়ে আকাশে ১৫ বছরের জন্য ভাড়া নেয়া হয়েছে স্যাটেলাইট রাখার স্লট।

এই টাকা তো আমাদের!!

পুরো স্যাটেলাইট বানানো থেকে শুরু করে উৎক্ষেপণ ও কক্ষপথে আটকিয়ে রাখার ব্যবস্থা, এই সকল কিছুর মাঝে আমাদের সার্থকতাটা কোথায় আমি বুঝলামনা।

যেভাবে আনন্দ হচ্ছে, আমি ভেবেছিলাম বাংলার দামাল ছেলে রহিম, করিম, মফিজেরা নিজের হাতে তৈরী করা স্যাটেলাইট বানিয়ে পৃথিবীকে দেখিয়ে দিচ্ছে, দেখো তোমরা, বাঙালি নিজেরাই স্যাটেলাইট বানাতে পারে.

এরকম ক্যাশ টাকা দিলে আমেরিকান স্যাটেলাইট নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান উগান্ডার জন্যেও স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করবে.

স্যাটেলাইটের নামটা শুধু আমাদের দেয়া , বাকি সবকিছুই আমেরিকার তৈরী.

সোভিয়েত ইউনিয়নের পর প্রায় ৪০টা দেশ এই পর্যন্ত ৬৬০০ টা স্যাটেলাইট মহাকাশে পাঠিয়েছে, তার মধ্যে ৩৫০০ টির উপরে এখন পর্যন্ত মহাকাশের বিভিন্ন কক্ষপথে ভেসে আছে.

যাক, ৬৫০১ নম্বর উৎক্ষেপণে এই আনন্দের কি আছে আমি জানিনা.

তাও আবার বিশ্বকে দেখিয়ে দেয়ার হুঙ্কার!!!

আরে বিশ্ব তো এই পর্যন্ত হাজার বার দেখতে দেখতে এখন আর এগুলি দেখার টাইম নাই.

আরেকটা মজার ব্যাপার!

নর্থ কোরিয়ার প্রায় অনেক মানুষ ঠিক মতো খেতে পায়না। অথচ তারা নিজেদের তৈরী করা স্যাটেলাইট মহাকাশে পাঠিয়েছে অনেক আগেই. দীর্ঘদিন বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা জারি থাকা সত্বেও, ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ডেইলিএকবার করে ধমক দেয়.

ধমক খেয়ে এখন ট্রাম্প কিম জং উনের সাথে বন্ধুত্ব পাতানোর জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

পরিশেষে বলবো,অন্যের তৈরী জিনিস কিনে নিজের গায়ে জড়িয়ে অন্যকে ছোট করে না দেখে, নিজে কি তৈরী করতে পারলাম সেটাতে বেশি দৃষ্টি দেয়া উচিত।

রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে যেসব মেধাবী ছাত্ররা পড়াশুনা করার উদ্দেশ্যে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে নিজের মেধা বিলিয়ে দিচ্ছে, তাঁদের পেছনে যদি এই স্যাটেলাইট কেনার টাকা খরচ করা হতো, নিশ্চিত তারা এমন স্যাটেলাইট অনেক আগেই বানিয়ে আকাশে পাঠাতে পারতো।

আসুন নিজেরা কি করতে পারলাম সেটার উপরেই বেশি মনোযোগী হই।

মানুষকে আর বোকা বানানোর চেষ্টা না করি।

সাইফুর সাগর
সাংবাদিক, কলামিস্ট


খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন