বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮ ১১:১৬:৩৪ এএম

দুই দিনব্যাপী বার কাউন্সিল নির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলছে

আইন আদালত | সোমবার, ১৪ মে ২০১৮ | ০১:৩২:০৭ পিএম

সারা দেশের আইনজীবীদের নিয়ন্ত্রণ ও তদারককারী সংস্থা বাংলাদেশ বার কাউন্সিল নির্বাচনের দুই দিনব্যাপী ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্টের একটি কেন্দ্রসহ দেশের মোট ৭৮টি কেন্দ্রে সোমবার সকাল ১০ টায় একযোগে শুরু হওয়া এই ভোটগ্রহণ চলবে মঙ্গলবার বিকেল ৫ টা পর্যন্ত।

এবারের নির্বাচনে সারা দেশের মোট ৪৩ হাজার ৭১৩ জন আইনজীবী তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। তবে সম্পূরক তালিকা থেকে আরও কিছু ভোটার বাড়বে। সে হিসাবে ভোটার সংখ্যা প্রায় ৪৪ হাজার হবে।

বার কাউন্সিল নির্বাচনে মোট ১৪ জন সদস্য ৩ বছরের জন্য নির্বাচিত হন। এর মধ্যে সারাদেশে সনদপ্রাপ্ত আইনজীবীদের ভোটে সাধারণ আসনে সাতজন এবং দেশের সাতটি অঞ্চলের স্থানীয় আইনজীবী সমিতির সদস্যদের মধ্য থেকে একজন করে আরও সাতজন নির্বাচিত হয়ে থাকেন। আর অ্যাটর্নি জেনারেল পদাধিকারবলে চেয়ারম্যান হয়ে থাকেন।

বার কাউন্সিল সূত্র জানায়, সোমও মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ করা হবে। ভোট গণনা শেষে মঙ্গলবার রাতেই ফল ঘোষণা করা হবে।

এ নির্বাচনের নির্বাচন কমিশন সূত্র জানায়, ভোট দেয়ার সময় আইনজীবীদের জাতীয় পরিচয়পত্র বা পাসপোর্টের ফটোকপি দেখাতে হবে।

বার কাউন্সিলের ১৪ সদস্যের বর্তমানে নির্বাহী কমিটিতে নেতৃত্ব দিচ্ছেন সরকার সমর্থক আইনজীবীরা। কমিটির ১০ জনই সরকার সমর্থক। বিএনপি সমর্থক আইনজীবীর সংখ্যা মাত্র ৪ জন। তাই কর্তৃত্ব ধরে রাখতে মরিয়া আওয়ামী সমর্থক আইনজীবীরা। অন্যদিকে হারানো স্থান ফিরে পেতে চায় বিএনপি সমর্থকরা। নির্বাচনকে সামনে রেখে ইতোমধ্যে সরকার ও বিএনপি সমর্থক উভয় প্যানেলের মনোনীত প্রার্থীরা সারাদেশে ব্যাপক প্রচার প্রচারণা চালিয়েছেন।

সরকার সমর্থক প্যানেল : এবারের নির্বাচনে সরকার সমর্থক আইনজীবীদের সংগঠন বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ থেকে প্যানেল নেতা হিসেবে নেতৃত্ব দিচ্ছেন বার কাউন্সিলের বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আবদুল বাসেত মজুমদার। এ প্যানেল থেকে সাধারণ আসনে প্রার্থী হয়েছেন- অ্যাডভোকটে ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, সৈয়দ রেজাউর রহমান, জেড আই খান পান্না, শ ম রেজাউল করীম, পরিমল চন্দ্র (পিসি) গুহ ও মোখলেসুর রহমান বাদল।

আর অঞ্চলভিত্তিক আসন থেকে সদস্য পদে ‘এ’ গ্রুপ থেকে কাজী নজিবুল্লাহ হিরু, ‘বি’ গ্রুপ থেকে মো. কবির উদ্দিন ভূঁইয়া, ‘সি’ গ্রুপ থেকে ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, ‘ডি’ গ্রুপ থেকে এএফ মো. রুহুল আনাম চৌধুরী, ‘ই’ গ্রুপ থেকে পারভেজ আলম খান, ‘এফ’ গ্রুপ থেকে মো. ইয়াহিয়া এবং ‘জি’ গ্রুপ থেকে মো. রেজাউল করিমকে প্রার্থী করা হয়েছে।

এরমধ্যে অ্যাডভোকটে আবদুল বাসেত মজুমদার, জেড আই খান পান্না, শ.ম রেজাউল করীম, কাজী নজিবুল্লাহ হিরু, ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, পারভেজ আলম খান, মো. ইয়াহিয়া এবং মো. রেজাউল করিম বর্তমান কমিটিতে রয়েছেন।

বিএনপি সমর্থক প্যানেল : বিএনপি সমর্থক আইনজীবী প্যানেলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এজে মোহাম্মদ আলী। সাধারণ আসনে প্রার্থী হয়েছেন অ্যাডভোকেট মো. ফজলুর রহমান, বোরহানউদ্দিন, হেলালউদ্দিন মোল্লা, তৈমুর আলম খন্দকার, মো. আব্বাস উদ্দিন ও আসিফা আশরাফী পাপিয়া।

আর অঞ্চলভিত্তিক আসনে বৃহত্তর ঢাকা জেলার সব আইনজীবী সমিতির জন্য (গ্রুপ-এ) অ্যাডভোকেট মো. মহসিন মিয়া, বৃহত্তর ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, ফরিদপুর জেলার আইনজীবী সমিতিতে (গ্রুপ-বি) অ্যাডভোকেট শ্রী জীবন কুমার গুস্বামী, বৃহত্তর চট্রগ্রাম ও নোয়াখালী জেলার আইনজীবী সমিতিতে (গ্রুপ-সি) দেলুয়ার হোসেন চৌধুরী, বৃহত্তর কুমিল্লা জেলা ও সিলেট জেলা অঞ্চলের আইনজীবী সমিতিতে (গ্রুপ-ডি) এটিএম ফায়েজ, বৃহত্তর খুলনা, বরিশাল ও পটুয়াখালী অঞ্চলের আইনজীবী সমিতিতে (গ্রুপ-ই) এসআর ফারুক, বৃহত্তর রাজশাহী, যশোর ও কুষ্টিয়া অঞ্চলের আইনজীবী সমিতিতে (গ্রুপ-এফ) মো. ইসাহাক এবং বৃহত্তর দিনাজপুর, রংপুর, বগুড়া ও পাবনা জেলার আইনজীবী সমিতিতে (গ্রুপ-এফ) শেখ মো. মোখলেসুর রহমান প্রার্থী হয়েছেন।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন