শুক্রবার, ২০ জুলাই ২০১৮ ০৮:৪৯:১৫ এএম

প্রিজাইডিং অফিসারকে বের করে দিয়ে নৌকায় সিল, ভোট বন্ধ

জেলার খবর | খুলনা | মঙ্গলবার, ১৫ মে ২০১৮ | ১১:৪৯:০০ এএম

খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে একটি ভোটকেন্দ্রের একটি বুথে ঢুকে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে সিল মারার পর সেখানে ভোট বন্ধ করে দিয়েছেন প্রিজাইডিং কর্মকর্তা।

নগরীর ২২ নম্বর ওয়ার্ডের ফাতিমা উচ্চ বিদ্যালয়ে ঘটনাটি ঘটেছে। সেখানে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এক নম্বর বুথে কয়েকজন ঢুকে ৪৫টি ব্যালটে নৌকা মার্কায় সিল দেন বলে জানিয়েছেন ওই কেন্দ্রের নির্বাচনী কর্মকর্তা। পরে সেখানে ভোট বন্ধ করে দেয়া হয়।
ওই কেন্দ্রের সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার রিতেশ বিশ্বাস গণমাধ্যমকে বলেন, ‘কিছু লোক হঠাৎ বুথে ঢুকে আমাদের সরিয়ে নৌকা মার্কায় সিল মারে। পরে আমি বিষয়টি প্রিজাইডিং অফিসারকে জানাই। এরপর থেকে এখন পর্যন্ত ভোট বন্ধ আছে।’
জানতে চাইলে প্রিজাইডিং অফিসার জিয়াউল হক বলেন, ‘এমন ঘটনা ঘটার পরপরই আমরা ভোট বন্ধ রেখেছি। বিষয়টি রিটার্নিং কর্মকর্তাকে জানিয়েছে। তিনি সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাকে পাঠিয়েছিলেন।’

সকাল থেকেই উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট শুরু হয়েছে খুলনায়। মঙ্গলববার সকাল ৮টা থেকে ২৮৯টি কেন্দ্রের এক হাজার ৫৬১টি ভোটকক্ষে শুরু হয় ভোট। এই নির্বাচনে চার লক্ষ ৯৩ হাজার ৯৩ জন ভোটার রয়েছেন।

সেখানে একজন মেয়র ছাড়াও ৩১টি ওয়ার্ডে একজন করে সাধারণ কাউন্সিলর এবং ১০টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে নারী কাউন্সিলর নির্বাচনে ভোট দিচ্ছেন ভোটাররা।

আওয়ামী লীগের প্রার্থী তালুকদার আবদুল খালেক জানিয়েছেন, তিনি তার দলের কর্মীদেরকে কোনো ধরনের খারাপ আচরণ না করতে নির্দেশ দিয়েছেন।

বিএনপির প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু ৪০টি কেন্দ্রে তার এজেন্টদের বের করে দেয়ার অভিযোগ এনেছেন। তবে দুটি কেন্দ্রে গিয়ে দেখা গেছে, ধানের শীষের কোনো এজেন্ট সেখানে যাননি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও নির্বাচনী কর্মকর্তারা জানান, বিএনপির এজেন্টকে ডেকেও পাননি তারা।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন