রবিবার, ১৯ আগস্ট ২০১৮ ০৫:৫১:২০ এএম

সংস্কৃত ও পালি শিক্ষা বোর্ড গঠনের দাবি

জাতীয় | শুক্রবার, ১৮ মে ২০১৮ | ০৭:৪৯:০৪ পিএম

মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের মতো স্বশাসিত বা স্বায়ত্বশাসিত সংস্কৃত ও পালি শিক্ষা বোর্ড গঠনসহ ৫ দফা দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ সংস্কৃত ও পালি শিক্ষক সমিতি।

শুক্রবার বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধন থেকে দাবিগুলো তুলে ধরেন বক্তারা।

বক্তারা বলেন, সংস্কৃত ও পালি ভাষা বাংলাদেশ তথা ভারতীয় উপমহাদেশের দুটি প্রাচীনতম ভাষা। বাংলাদেশে সংস্কৃত ও পালি শিক্ষা বোর্ডের অধীন ১২৯টি সংস্কৃত ও ৯৩টি পালি টোল/কলেজ/চতুষ্পাঠ মাধ্যমে বাংলাদেশ প্রাচীন পদ্ধতিতে সংস্কৃত ও পালি ভাষা শিক্ষা পাঠদান করা হয়। দুঃখের বিষয়, বাংলাদেশে মাদ্রাসা শিক্ষাব্যবস্থা ও মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের মান ও শিক্ষাগত মর্যাদা বৃদ্ধি করা হলেও হিন্দু ও বৌদ্ধ ধর্মীয় শিক্ষাব্যবস্থা যথাক্রমে সংস্কৃত ও পালি শিক্ষা ব্যবস্থার মান ও শিক্ষাগত মর্যাদা প্রদান করা হয়নি।

তারা বলেন, বাংলাদেশে সংস্কৃত ও পালি শিক্ষা বোর্ড স্বয়ংসম্পূর্ণ বা স্বায়ত্বশাসিত না হওয়ায় তা নামমাত্র শিক্ষা বোর্ড হিসেবে পরিচালিত হচ্ছে। সংস্কৃত ও পালি টোল/কলেজ/চতুষ্পাঠ/ মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ, অধ্যাপক ও কর্মচারীদের সরকারি বেতন ও ভাতা নগণ্য ও অমানবিক। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নকল্পে আজ পর্যন্ত কোনো সরকার পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। তাই মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের মতো স্বশাসিত বা স্বায়ত্বশাসিত সংস্কৃত ও পালি শিক্ষা বোর্ড গঠনসহ ৫ দফা দাবি তুলে ধরেন বক্তারা। আগামী এক মাসের মধ্যে দাবি পূরণ না হলে পরবর্তীতে অনশন, আমরণ অনশনসহ কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলে হুশিয়ারি দেন বক্তারা।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক গোপেশ চন্দ্র রায়ের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদের সভাপতি দীপংকার সিকদার দিপু, সাধারণ সম্পাদক সাজন মিশ্র, মুখপাত্র সুমন কুমার রায়, অর্থ সম্পাদক বিপ্লব মিত্র প্রমুখ।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন