মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮ ০১:৪৮:১৮ পিএম

হ্যারি-মেগানের বিয়ে আজ

আন্তর্জাতিক | শনিবার, ১৯ মে ২০১৮ | ১১:৫৪:৪১ এএম

আজ যুক্তরাজ্যের জনগণ যেন উৎসবে মাতবেন। লক্ষ লক্ষ চোখ থাকবে আজ টিভির পর্দায়। বহু অপেক্ষার পালা শেষে আজ শনিবার (স্থানীয় সময় দুপুর ১২টা) বিয়ের পিড়িতে বসতে যাচ্ছেন ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের নাতি প্রিন্স হ্যারি ও মার্কিন টিভি সিরিয়াল ‘স্যুইটস’ এর অভিনেত্রী মেগান মার্কেল। ৩৩ বছর বয়সী প্রিন্স হ্যারির চেয়ে তিন বছরের বড় মেগান মার্কেল।

বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা
হ্যারি এবং মেগানের বিয়ে হবে উইন্ডসর ক্যাসেলের সেন্ট জর্জেস চ্যাপেলে। এটি সেন্ট্রাল লন্ডন থেকে ২০ মাইল দূরে সবচেয়ে পুরনো ও বড় দূর্গ। প্রাচীনতম এই দুর্গেই খ্রিষ্টীয় রীতিতে বিয়ে হবে মেগান ও হ্যারির। উইন্ডসর হ্যারির দাদি ও রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের বাসস্থান। সপ্তাহের বেশির ভাগ সময় তিনি এখানেই থাকেন।


আজ স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় বিয়ের শপথ নেবেন প্রিন্স হ্যারি ও মার্কেল বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করতে এক ঘন্টা সময় লেগে যাবে। সকাল নয়টার মধ্যে তাদের উপস্থিত হতে বলা হয়েছে। সন্ধ্যা সাতটায় হ্যারি ও মেগানের রিসেপশন অনুষ্ঠিত হবে।

হ্যারি-মেগানের রাজকীয় বিয়ের ভেন্যু ফুল দিয়ে সাজিয়ে তোলার দায়িত্ব পেয়েছেন লন্ডনের ফুল ব্যবসায়ী ফিলিপ্পা ক্র্যাডোক। থাকছে সাদা গোলাপ, পিওনি ও ফক্সগ্লোভস। ফুলের পাশাপাশি ভেন্যু সাজাতে কয়েক ধরনের সুন্দর পাতাও ব্যবহার করা হবে। আর বিয়ের পর সেই ফুলগুলো সব দান করে দেয়া হবে স্থানীয় দাতব্য প্রতিষ্ঠানে।

বিয়েতে ব্যবহূত অনেক ফুল আর পাতা সংগ্রহ করা হবে রাজপরিবারের নিজস্ব ক্রাউন এস্টেট আর উইন্ডসর গ্রেট পার্কের বাগান থেকে।

রাজপরিবারের সদস্য বলে প্রিন্স হ্যারি আর মেগান মার্কেলের বিয়ের অনুষ্ঠান বিশ্বের অনেক দেশ থেকেই সরাসরি দেখা যাবে।

রাজপ্রাসাদের তথ্য অনুযায়ী, বিয়ের পর শিগগিরই হানিমুনে যাচ্ছেন না এই হবু দম্পতি। জর্জেস চ্যাপেলে হওয়া প্রিন্স হ্যারি ও মেগানের বিয়ে দেখার জন্য উইন্ডসর ও শহরটির অন্যত্র বড় স্ক্রিন লাগানো হবে। এছাড়া গির্জা ও অন্যান্য বিভিন্ন গোষ্ঠী বিভিন্ন শহর ও গ্রামে বিয়ের অনুষ্ঠান দেখাতে বড় স্ক্রিন লাগানোর পরিকল্পনা নিয়েছে।

বিয়ের পোশাক
যতক্ষন না পর্যন্ত মেগান মার্কেল সেন্ট জর্জেস চ্যাপেলে না আসবেন ততক্ষণ পর্যন্ত তার পোশাক সম্পর্কে নিশ্চিত করে কোনো কিছু বলা যাচ্ছে না। তবে ব্র্যান্ড রাফ অ্যান্ড রুশো তার পোশাকের ডিজাইন করতে পারেন।

অনুষ্ঠানে থাকবেন না মার্কেলের বাবা
চ্যাপেলের করিডর ধরে হাঁটার কথা ছিল মার্কেলের বাবা টমাস মার্কলের। রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ, যুবরাজ চার্লস এবং ডাচেস অব কর্নওয়েল ক্যামেলা, প্রিন্স হ্যারির বড় ভাই উইলিয়াম এবং তার স্ত্রীর সঙ্গে আলাপ হওয়ারও কথা ছিল তার। কিন্তু এসবের কিছুই হচ্ছে না। সম্প্রতি পাপারাজিদের সামনে পোজ দিয়ে ব্রিটিশ রাজপরিবারকে চটিয়েছেন টমাস। যদিও তিনি প্রথমে বলেছিলেন কাউকে ছবি তুলতে দেননি। অবশ্য পোজ দেয়ার কথা পরে তিনি স্বীকার করেন। এ নিয়ে বিতর্ক শুরু হওয়ার পরই টমাসের পরিবারের পক্ষ থেকে অসুস্থতার কথা জানানো হয়।

কারা থাকবেন বিয়ের অনুষ্ঠানে
বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার জন্যে ৬০০ অতিথির কাছে আমন্ত্রণপত্র পাঠিয়েছে রাজপরিবার। নব দম্পত্তিকে দেয়া রিসেপশনে থাকবেন আরও ২০০ অতিথি। উইন্ডসর কাসেলের মাঠে থাকবেন আরও ১২০০ সাধারণ অতিথি। প্রিন্স হ্যারি এবং মেগানের ঘনিষ্ট হিসেবে পরিচিত দুইশ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। তবে অতিথিদের পূর্ণ তালিকা প্রকাশ করা হয়নি এখনও। বিয়েতে আমন্ত্রণ পাননি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। হ্যারির সঙ্গে ঘনিষ্ট হওয়ায় এবার ওবামার উপস্থিতির কথা বলা হলেও পরে জানানো হয় ওবামা বিয়েতে অংশ নিচ্ছেন না। বিয়েতে চলচ্চিত্র জগতের তারকাসহ খেলোয়াড়রা উপস্থিত থাকবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

বিয়েতে খরচ কত
সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, খুব সহজেই এ খরচ ১ মিলিয়ন পাউন্ড হয়ে যেতে পারে; বাংলাদেশি টাকায় যা ১২ কোটি টাকার কাছাকাছি।

কেনিংসটন প্যালেস এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, বিয়ের একেবারে মূল খরচগুলোর ব্যয় রাজপরিবার বহন করবে, যেমন: গির্জার খরচ, মিউজিক, ফুল, সাজসজ্জা এবং অভ্যর্থনা।

প্রেস অ্যাসোসিয়েশনের তথ্য অনুযায়ী, ২০১১ সালে প্রিন্স উইলিয়াম ও কেট মিডলটনের বিয়ের সময় নিরাপত্তা খাতে খরচ হয়েছিল প্রায় ৬.৪ মিলিয়ন পাউন্ড; বাংলাদেশি টাকায় যা ৭৪ কোটি টাকার কাছাকাছি।

হ্যারি-মেগানের আদলে কেক
রাজকীয় এই বিয়ের নবদম্পতিকে সম্মান জানাতে তাদের সমান আকারের বিশেষ একটি কেক তৈরি করেছেন লারা মেশন। ইতোমধ্যে লারা তার ফেসবুক পেজে কেকের একটি ছবিও পোস্ট করেছেন। প্রিন্স হ্যারি ও মার্কেলের সম্পর্কের কথাটি প্রকাশের পর তাদের যে ছবি গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছিল তার আদলেই তৈরি হয়েছে কেকটি।

উল্লেখ্য, পরস্পরের বন্ধুদের মাধ্যমে ২০১৬ সালের জুলাইয়ে মার্কিন অভিনেত্রী মার্কেলের সঙ্গে ব্রিটিশ সিংহাসনের পঞ্চম উত্তরাধিকারী প্রিন্স হ্যারি পরিচয় হয়। মার্কিন টিভি সিরিজ ফ্রিঞ্জ’ ও ‘স্যুইটস’ অভিনয় করে জনপ্রিয়তা পাওয়া মেগানের আগে একবার বিয়ে হয়েছিল। গত বছরের নভেম্বরের শুরুতেই তাদের মধ্যে বাগদান সম্পন্ন হয়।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন