বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ ০৫:৩৫:৩৩ পিএম

দুই লঞ্চের চাপায় পা হারাতে বসেছেন রহমত

জাতীয় | শনিবার, ১৯ মে ২০১৮ | ১১:২৯:৩৭ পিএম

রাজধানীর সদরঘাটে দুই লঞ্চের চাপায় পা হারাতে বসেছেন ফ্যামিলি বেকারির শ্রমিক রহমত উল্লাহ (২২)।

শনিবার (১৯ মে) বিকেল ৫টায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহত ওই ‌শ্রমিককে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসলে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাকে পুঙ্গ হাসপাতালে পাঠায় চিকিৎসক।

উদ্ধারকারী এনায়েত হোসেন বলেন, আমি এমভি আবে জমজম লঞ্চে কাজ করি। শনিবার বিকেলে আমাদের লঞ্চেই চাঁদপুর থেকে সদরঘাটে আসেন রহমত। লঞ্চটি টার্মিনালে আসার পর আমাদের লঞ্চের পাশেই আরেকটি লঞ্চ (জমজম১) বাঁধা ছিল। রহমত তাড়াহুড়ো করে নামার সময় দুই লঞ্চের ফাঁকে তার পা চাপা পড়ে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসি।

ঢামেকের জরুরি বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক ডা. মিনহাজ উদ্দিন বলেন, রহমতের পায়ের অবস্থা ভালো না, হাঁটুর নিচের অংশ থেঁতলানো। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে- পায়ের মাংস থেঁতলে গেছে, হাড়ও ভেঙে গেছে। তবে এক্স-রে করার পর বলা যাবে আসলে কতটুকু ফ্র্যাকচার হয়েছে ও তার পায়ের রক্ষা হবে কিনা।

আহত রহমত উল্লাহর গ্রামের বাড়ি চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে গোবিন্দপুর গ্রামে। তার বাবার নাম লোকমান মিয়া। বর্তমানে রহমতউল্লাহ ঢাকার জুরাইনের চেয়ারমেন বাড়ি এলাকায় ফ্যামিলি বেকারিতে কাজ করেন, সেখানেই থাকেন। দুই ভাই দুই বোনের মধ্যে সে তৃতীয়।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন