বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮ ০৩:০৫:৫৮ এএম

মদ খেয়ে শিক্ষককে পেটালেন ইউপি সদস্য

জেলার খবর | রাজবাড়ী | বৃহস্পতিবার, ২৪ মে ২০১৮ | ০৮:০০:৪৮ পিএম

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলায় মদপান করে মাতাল অবস্থায় মাহফুজুর রহমান মিলন (৩৫) নামে এক স্কুলশিক্ষককে পিটিয়ে আহত করেছেন ইউপি সদস্য সিদ্দিক সরদার (৫৮) ও তার সহযোগী মজিবার রহমান (৪৮)।

এ ঘটনায় ইউপি সদস্য সিদ্দিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার রাত ১১টার দিকে গোয়ালন্দ পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের কৃষ্ণতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে পাঠায় পুলিশ।

আহত মাহফুজুর রহমান মিলন উপজেলার কেউটিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও গোয়ালন্দ পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা মতিউর রহমানের ছেলে।

গ্রেফতার সিদ্দিক সরদার উপজেলার ছোটভাকলা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের সদস্য ও তার সহযোগী মজিবার রহমান গোয়ালন্দ পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের হাউলি কেউটিল গ্রামের শমসের সরদারের ছেলে।

আহত স্কুলশিক্ষক মাহফুজুর রহমান মিলন বলেন, ইউপি সদস্য সিদ্দিক সরদার বুধবার রাত ১১টার দিকে মদপান করে আমাদের বাড়ি সংলগ্ন দোকানের সামনে প্রতিদিনের ন্যায় অকথ্য ভাষায় গালাগালিসহ মাতলামি করছিলেন।

এ সময় বাড়ির বাইরে এসে ইউপি সদস্য সিদ্দিক সরদারকে তার বাড়িতে যেতে বলি। এ কথা বলতেই তিনি ও তার সঙ্গে থাকা মজিবর লাঠি দিয়ে আমাকে এলোপাতাড়ি পেটাতে থাকে। এ সময় আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে অাহত অবস্থায় আমাকে উদ্ধার করে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

তিনি বলেন, আমার হাতের ৩টি আঙুল ভেঙে গেছে। এছাড়া শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশের ওসি মীর্জা অাবুল কালাম আজাদ জানান, প্রকাশ্যে মাদকসেবন করে মাতলামির দায়ে ইউপি সদস্য সিদ্দিক সরদারকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। শিক্ষককে মারপিট করে আহত করেছে ইউপি সদস্যের সহযোগী মজিবর। এ ব্যাপারে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন