শনিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৮ ০৮:৫৪:৫৮ পিএম

নিজ গ্রামে লিভারপুলের ৩০০ জার্সি পাঠালেন মানে

খেলাধুলা | শুক্রবার, ২৫ মে ২০১৮ | ১০:১০:১৫ পিএম

ইউক্রেনের কিয়েভে শনিবার চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে মুখোমুখি হবে রিয়াল মাদ্রিদ ও লিভারপুল। ফাইনালের সময় সমর্থকদের পরার জন্য সেনেগালে নিজ গ্রামে লিভারপুলের ৩০০টি জার্সি পাঠিয়েছেন ‘অল রেড’দের ফরোয়ার্ড সাদিও মানে।

লিভারপুল সবশেষ চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা জিতেছিল ২০০৫ সালে। মানে তখন ছিলেন দক্ষিণ সেনেগালের বাম্বালিতে নিজ গ্রামে। তখনকার ১৩ বছর বয়সি মানেও গ্রামের মানুষদের সঙ্গে টেলিভিশনে দেখেছিলেন ফাইনালটি। নাটকীয় সেই ফাইনালে এসি মিলানকে টাইব্রেকারে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল লিভারপুল।

মানের আশা, শনিবার চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে লিভারপুল যখন রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হবে, তখনো তার গ্রামের মানুষদের চোখ থাকবে টেলিভিশনের পর্দায়। সমর্থকদের জন্য তাই নিজ গ্রামে লিভারপুলের জার্সি পাঠিয়েছেন ২৬ বছর বয়সি এই ফরোয়ার্ড।

মানে বলেছেন, ‘আপনি যদি বলেন আমি ফাইনালে খেলব, তাহলে আমি বলব এটা আমার জীবনের এক অসাধারণ অধ্যায়। আশা করি আমরা জিতব। আমার পরিবার এখনো গ্রামে বাস করে- আমার মা ও চাচা।’

‘তারা সবাই খেলা দেখবে। আমার গ্রামের লোকসংখ্যা ২০০০। আমি ৩০০টি লিভারপুলের জার্সি কিনে সেখানকার ভক্তদের জন্য পাঠিয়েছি, যাতে তারা ফাইনাল ম্যাচ দেখার সময় সেগুলো পরিধান করতে পারে। বিশ্বকাপের পর আমি গ্রামে যাব। আশা করি, সবাইকে তখন চ্যাম্পিয়ন মেডেল দেখাতে পারব’- যোগ করেন মানে।

১৩ বছর আগে ইস্তাম্বুলের সেই ফাইনালটি অনেকের চোখে চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসের সেরা ফাইনাল। ম্যাচের ৪৪ মিনিটেই ৩-০ গোলে পিছিয়ে পড়েছিল লিভারপুল। কিন্তু স্টিভেন জেরার্ডে অনুপ্রাণিত লিভারপুল ৫৪ থেকে ৬০ - ছয় মিনিটের ঝড়ে ৩ গোল করে ম্যাচে সমতা নিয়ে আসে। পরে টাইব্রেকারে ৩-২ গোলে জিতে শিরোপা উৎসব করে তারা।

গ্রামে এক বন্ধুর সঙ্গে ম্যাচটি দেখেছিলেন মানে। সেই স্মৃতি এখনো তার ভালোমতোই মনে আছে, ‘ওটা আমার জন্য বড় স্মৃতি। সে (বন্ধু) বিশ্বাসই করতে পারছিল না...এমনকি এখনো সে বিশ্বাস করতে পারে না লিভারপুল জিতেছিল। এ সপ্তাহে তার সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। সে এখনো সেনেগালে থাকে। সে আমাকে বলেছে, এবার ৩-০ গোলে পিছিয়ে পড়ো না।’

১২ বছর পর চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে ওঠা লিভারপুলকে আন্ডারডগ ভাবা হচ্ছে। তাদের প্রতিপক্ষ রিয়াল মাদ্রিদ যে হ্যাটট্রিক শিরোপার খুঁজে। কিয়েভের ফাইনালে সবাই যে লিভারপুলকে সমর্থন করবেন না, সেটা জানেন মানে। তবে লিভারপুল চ্যাম্পিয়ন হলে সেটা ফুটবলের জন্যই ভালো হবে বলে তিনি মনে করেন।

‘আমি বলব না, বিশ্বের বেশিরভাগ মানুষ আমাদের সমর্থন করবে। প্রত্যেকে সম্ভবত রিয়াল মাদ্রিদ, এভারটন, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কিংবা ম্যানচেস্টার সিটির সমর্থকও নয়। আমার মনে হয়, সবাই চাইবে লিভারপুল চ্যাম্পিয়ন হোক। এটা ফুটবলের জন্যই ভালো হবে’- বলেন মানে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন