সোমবার, ১৮ জুন ২০১৮ ০১:৪৯:৪২ পিএম

রাষ্ট্রপতির ক্ষমা, মুক্তি পেয়েই বিদেশে জোসেফ

জাতীয় | বুধবার, ৩০ মে ২০১৮ | ০৫:৩৩:০১ পিএম

শারীরিক অসুস্থতার কারণে রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা ভিক্ষা চেয়েছিলেন হত্যা মামলায় ফাঁসির দণ্ড কমে যাবজ্জীবন সাজা পাওয়া তোফায়েল আহমেদ জোসেফ। রাষ্ট্রপতি আবেদনের পরিপেক্ষিতে তার সাজা মওকুফ করেছেন।

এ কথা জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। বুধবার (৩০ মে) সচিবালয়ে মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া স্টিফেন্স ব্লুম বার্নিকাট সাক্ষাতের পর মন্ত্রী সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দেন।

এসময় উপস্থিত সাংবাদিকরা জোসেফের বিষয়ে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, দেখুন, জোসেফের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়েছিল এবং সে অলরেডি ২০ বছর কারাভোগ করেছেন। তিনি ২০ বছর কারাভোগের পরে ডিউ প্রোসেসে আবেদন করেছেন। সেই আবেদনটি মহামান্য রাষ্ট্রপতি পর্যন্ত যাচ্ছে।

একজন সাংবাদিক বলেন, জোসেফ ভারতে চলে গেছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পাল্টা প্রশ্ন করে বলেন, ইন্ডিয়াতে চলে গেছে আপনি দেখেছেন নাকি? ওই সাংবাদিক তখন বলেন, আমি দেখিনি।

‘তিনি (জোসেফ) আবেদন করেছিলেন ভয়ানক অসুস্থ, এক বছর না দেড় বছর বাকি ছিল (সাজা), এক বছর কয়েক মাস। সেটার জন্য তিনি মার্সি পিটিশন করেছিলেন, সেই মার্সি পিটিশন খুব সম্ভব রাষ্ট্রপতি অনুমোদন করেছেন, এক বছর কয়েক দিন, তার কিছু অর্থদণ্ডও ছিল। সেগুলো আদায় সাপেক্ষে তাকে বিদেশে যেয়ে চিকিৎসা করার পারমিশন দিয়েছিলেন রাষ্ট্রপতি। এটুকু আমি জানি, এর চেয়ে বেশি কিছু জানি না।’

রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকার শীর্ষ সন্ত্রাসী জোসেফকে ১৯৯৯ সালের একটি হত্যাকাণ্ডের দায়ে মৃত্যুদণ্ড দেন বিচারিক আদালত। এ রায়ের বিরুদ্ধে জোসেফ আপিল করলেও মৃত্যুদণ্ড বহাল রাখেন হাইকোর্ট। পরে আপিল বিভাগ এ সাজা কমিয়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন।

কারাগারে বন্দি জোসেফ চিকিৎসার জন্য ২০ মাস ধরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের (বিএসএমএমইউ) কারাকক্ষে ছিলেন।

জোসেফ অসুস্থ না হয়েও দীর্ঘদিন ধরে চিকিৎসার নামে আরাম-আয়েশ করছেন বলে সংবাদমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হলে গত ৭ মে তাকে কারাগারে ফিরিয়ে নেয় কারাকর্তৃপক্ষ।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন