রবিবার, ২২ জুলাই ২০১৮ ০৩:০২:৪৪ পিএম

বিশ্বকাপের ‘বাতিল’ একাদশ!

খেলাধুলা | রবিবার, ৩ জুন ২০১৮ | ০১:১৬:১৯ পিএম

এবারের বিশ্বকাপে ইতালির মতন পরাশক্তি নেই। সেই সঙ্গে নেই কোপা আমেরিকা জয় করা চিলিও। আরেক জায়ান্ট নেদারল্যান্ডসও নেই এবারের বিশ্বকাপে। দল বাদ পরার সঙ্গে সঙ্গে বিশ্বকাপের স্বপ্নও শেষ হয়ে যায় অনেক তারকার।

এবারের বিশ্বকাপের মতন আসর থেকে অনেক বড় বড় তারকা ছিটকে পড়েছে। আসুন জেনে নেই এবারের বিশ্বকাপ থেকে কারা কারা বাদ পড়েছে

গোলকিপার: জিয়ানলুইজি বুফন (ইতালি)
ইতালির অধিনায়ক সেই সঙ্গে বেশি ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা তাঁর। সেই বুফনই কিনা অভিজ্ঞতার ঝুলিতে ঠাসা নিজের দলকে নিয়ে যেতে পারলেন না বিশ্বকাপের মতন আসরে। ২০০৬ সালে বিশ্বকাপ জয় করলেও এবার সুইডেনের মতন দলের কাছে হেরে বিশ্বকাপের মঞ্চে যাওয়ার আগেই বিদায় নেন।

রাইট ব্যাক: আন্তোনিও ভ্যালেন্সিয়া (ইকুয়েডর)
ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের অন্যতম ভরশার প্রতীক হচ্ছেন ভ্যালেন্সিয়া । কিন্তু সেই ভ্যালেন্সিয়া এবার রাশিয়ায় থাকছেন না ইকুয়েডর ব্যর্থ হওয়ায়। তাঁকে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের বেষ্ট রাইট ব্যাক বলা হয়।

সেন্টার ব্যাক: জিওর্জিও চিয়েলিনি (ইতালি)
চিয়েলিনি দুনিয়ার বাঘা বাঘা ডিফেন্ডারের মধ্যে অন্যতম একজন। বড় ম্যাচের খেলোয়াড়ও বলা হয়ে থাকে তাঁকে। সেই চিয়েলিনিকেই কিনা এবারের বিশ্বকাপের মঞ্চে দেখা যাবে না।

সেন্টার ব্যাক: ভিরজিল ভ্যান ডিক (নেদারল্যান্ডস)
লিভারপুলের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য ডিফেন্ডার বলা হয় ভ্যান ডিককে। ভ্যানকে লিভারপুলে নিয়ে আসার পর থেকে রাতারাতি বদলিয়ে যায় সব কিছু লিভারপুলের। তাঁর ডিফেন্সের উপর ভর করেই লিভারপুল চ্যাম্পিয়নস লীগের ফাইনাল খেলবে। আর তাঁকেই নাকি বিশ্বকাপের আসরে দেখা যাবে।

লেফট ব্যাক: ডেভিড আলাবা (অস্ট্রিয়া)
বায়ার্ন মিউনিখের সবসময়কার নির্ভরযোগ্য ও ধারাবাহিক লেফট ব্যাক বলা হয় আলাবাকে। জার্মান লিগে তিনি মাতিয়ে বেড়ালেও বিশ্বকাপের মতন আসরে অভিষেক হচ্ছে না অস্ট্রিয়া যোগ্যতা অর্জন করতে পারলো না বলে।

মিডফিল্ড: মার্কো ভেরাত্তি (ইতালি)
পিএসজির মধ্য মাঠের অন্যতম খেলোয়াড় বলা হয় তাঁকে। সুইডেনের সঙ্গে ম্যাচ হেরে তাঁকেও বিদায় জানাতে হয় এবারের রাশিয়া বিশ্বকাপকে।

মিডফিল্ড: আরতুরো ভিদাল (চিলি)
ফুটবল বিশ্বের অন্যতম মিড ফিল্ডার ভিদাল। তাঁর হাত ধরেই এসেছে চিলির কোপা আমেরিকা। সেই দল বিশ্বকাপের মতন আসরে সুযোগ না পাওয়ায় দেখা যাবে না ভিদালের মতন খেলোয়াড়কে।

রাইট উইং: আরিয়েন রোবেন (নেদারল্যান্ডস)
২০১০ এ স্পেনে, ২০১৪ সালে ব্রাজিলে একাই দলকে টেনেছিলেন। দেশকে করেছেন বিশ্বকাপের মতন আসরে রানার্স আপ। অন্যবার তৃতীয়। ভাগ্যের নিয়তি তাঁর দেশ এবারের বিশ্বকাপের বাছাই পর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছে।

লেফট উইং: গ্যারেথ বেল (ওয়েলস)।
রিয়াল মাদ্রিদের অন্যতম ভরশার প্রতীক বেল। তাঁর ক্যারিয়ারে বেশিভাগ সময়ই কেটেছে ইনজুরিতে। কিন্তু যখনই তিনি সুযোগ পেয়েছেন দেখিয়েছেন পারফর্ম করেই। এবার ক্লাবের হয়ে রয়েছেন ফর্মের তুঙ্গে। কিন্তু ছোট দেশ ওয়েলসের বড় তারকা বেলকেই দেখা যাবে না এবারের বিশ্বকাপে।

অ্যাটাকিং মিডফিল্ড: আলেক্সিস সানজেচ (চিলি)
ম্যানেচস্টার ইউনাইটেডের সব থেকে দামি খেলোয়াড় এখন তিনি। ফর্মেও তুঙ্গে রয়েছেন তিনি এখন। তবে বিশ্বকাপের মতন আসরে তিনি তাঁর নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি। যার কারনে বাছাই পর্বেই তাঁকে হারতে হয়েছে দেশের হয়ে। দেশ হারার সঙ্গে সঙ্গে হেরে যান তিনিও। এবারের বিশ্বকাপে তাঁকে দেখা যাবে না।

স্ট্রাইকার: পিয়েরে-ইমেরিক আবামেয়াং (গ্যাবন)
রেকর্ড পরিমান ট্রান্সফারে এবারের মৌসুমে আর্সেনালে যোগ দিয়ে আলোচনায় ছিলেন আবামেয়াং। কিন্তু ক্লাবের হয়ে তিনি যে বিশ্বসেরাদের একজন। যারা ক্লাব ফুটবল নিয়ে খোঁজ খবর রাখেন তাঁরা অনেক জানেন তাঁর সম্পর্কে। ছোট দেশে জন্ম নেয়া এই তারকা তাঁর দলকে নিয়ে যেতে পারেননি বিশ্বকাপের মঞ্চে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন