বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১২:৫৯:১৫ এএম

মেয়েকে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা

জেলার খবর | বগুড়া | রবিবার, ৩ জুন ২০১৮ | ০৯:২৪:৫৪ পিএম

বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলায় সংসারে অভাব-অনটনের কারণে মেয়েকে হত্যার পর আত্মহত্যা করেছেন এক মা। রোববার বিকেলে উপজেলার চন্দনবাইশা ইউনিয়নের ঘুঘুমারি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

সন্ধ্যায় পুলিশ মরদেহ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

স্থানীয়রা জানান, সারিয়াকান্দি উপজেলার দুর্গম এলাকা ঘুঘুমারি গ্রামের তারাজুল ফকিরের স্ত্রী নাদিয়া বেগম তার শাশুড়ির সঙ্গে থাকতেন। তার স্বামী ঢাকায় একটি কোম্পানিতে চাকরি করেন।

সংসারে অভাবে-অনটনে মানসিকভাবে বিকারগ্রস্ত ছিলেন নাদিয়া। রোববার বিকেলে দুই বছরের শিশু কন্যা তানজিলা কান্না শুরু করে। এতে রেগে গিয়ে শিশুটির মুখে বালিশচাপা দিয়ে হত্যা করেন মা। পরে শোবার ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় শাড়ি পেঁচিয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন নাদিয়া। এ সময় নাদিয়ার শাশুড়ি ঘরে ছিলেন না।

চন্দনবাইশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহাদৎ হোসেন দুলাল বলেন, ওই গৃহবধূ মানসিক রোগে ভুগছিলেন। আমরা গ্রামের লোকেরা বিষয়টি পুলিশকে জানিয়েছি।

সারিয়াকান্দি থানা পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টর হারুনুর রশিদ বলেন, ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ দুটি উদ্ধার করে শজিমেকে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে- সংসারে অভাব-অনটনের কারণে তারা আত্মহত্যা করেছেন।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন