সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ০৯:৩৯:৪৬ এএম

কুমিল্লায় ছাত্রদলের পদবঞ্চিতদের দলীয় অফিস ভাঙচুর

জেলার খবর | কুমিল্লা | বুধবার, ৬ জুন ২০১৮ | ০৯:৫৭:০০ এএম

নবগঠিত কুমিল্লা জেলা ও মহানগর কমিটিতে কাঙ্ক্ষিত পদ না পেয়ে ক্ষুব্দ ১১ ছাত্রদল নেতা পদত্যাগ করেছেন। এ ঘটনায় তারা নগরীর কান্দিরপাড়ার দলীয় অফিসের চেয়ার-টেবিল ভাঙচুর করেছেন।

দলীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে নবগঠিত জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের কমিটির বিষয়টি জানাজানি হলে কাঙ্ক্ষিত পদবঞ্চিতদের মাঝে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে।

একটি সূত্র জানায়, ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কুমিল্লা মহানগর ও ১১ সদস্য বিশিষ্ট দক্ষিণ জেলা ছাত্রদলের আংশিক কমিটি ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মামুনুর রশিদ মামুমের মাধ্যমে মঙ্গলবার রাতে অনুমোদনের খবর কুমিল্লায় আসার পরই এ ঘটনা ঘটে। কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের (কুসিক) মেয়র মনিরুল হক সাক্কু সমর্থিত ছয়জন ও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হাজী আমিন উর রশীদ ইয়াছিন গ্রুপ সমর্থিত পাঁচ জনসহ ১১ জন প্রত্যাশিত পদ না পাওয়ায় নগরীর কান্দিরপাড়ের জেলা বিএনপির পার্টি অফিসে রাতে সংবাদ সম্মেলন করে পদত্যাগ করেন। পরে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা রাত ১০টার দিকে দলীয় অফিসের চেয়ার-টেবিল ভাঙচুর করেন।

কুসিক মেয়র মনিরুল হক সাক্কু গ্রুপের যারা পদত্যাগ করেছেন তারা হলেন- মহানগর ছাত্রদলের সহ-সভাপতি আসিফ ইকবাল ফারিয়াল ও সাংগাঠনিক সম্পাদক শরিফ উদ্দিন বাহার এবং কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি ওমর ফারুক সার্কিট, সহ-সভাপতি আরিফুর রহমান সুমন, জামাল হোসেন নয়ন ও সাংগাঠনিক সম্পাদক মো. সাইফুদ্দিন।

এছাড়াও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হাজী আমিন উর রশীদ ইয়াছিন গ্রুপ সমর্থিত পদত্যাগকারীরা হলেন- মহানগর ছাত্রদলের সহ-সভাপতি তুষার পাল, সাধারণ সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন শিবলু, জেলা দক্ষিণ ছাত্রদলের সহ-সভাপতি শরিফুল ইসলাম সওদাগর, যুগ্ম সম্পাদক রায়হান চৌধুরী ও যুগ্ম সম্পাদক ইরফানুল হক বাবু।

এ বিষয়ে মহানগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ মোল্লা টিপু জানান, মেধাবীদের বাদ দিয়ে অযোগ্য ব্যক্তিদের দিয়ে দু’টি কমিটি গঠন করা হয়েছে। তাই আমাদের ছাত্রনেতারা পদত্যাগ করেছেন।

নবগঠিত মহানগর ছাত্রদলের সিনিয়র সহসভাপতি ফখরুল ইসলাম মিঠু বলেন, আমি কাঙ্ক্ষিত পদ পাইনি, পদত্যাগ করতে চেয়েছিলাম, কিন্তু পরে দলের হাইকমান্ড থেকে ফোন আসায় পদত্যাগ করিনি।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন