মঙ্গলবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৮ ০১:৫৪:০০ পিএম

বাংলাদেশকে হারিয়ে ইতিহাস গড়লো আফগানিস্তান

খেলাধুলা | বুধবার, ৬ জুন ২০১৮ | ০১:৫৩:২৬ পিএম

সাকিবের মুখচ্ছবি বলে দিচ্ছে আবারও পরাজয়ের হতাশা নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে। ছবি: বিসিবিসাকিবের মুখচ্ছবি বলে দিচ্ছে আবারও পরাজয়ের হতাশা নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে। ছবি: বিসিবিম্যাচ শেষে দুই আফগান ব্যাটসম্যান পেছনে, সামনে বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়েরা। এখানে মোহাম্মদ নবীরা পেছনে থাকলে কী, এক ম্যাচ বাকি থাকতে সিরিজটা বীরদর্পে জিতে তাঁরা মাঠ ছেড়েছেন! বাংলাদেশ আশা জাগিয়ে হেরেছে ৬ উইকেটে। আফগানদের বিপক্ষেও এখন জয়ের আশা জাগানোর কথা উল্লেখ করতে হয়! বাংলাদেশকে হারিয়ে ইতিহাস গড়লো আফগানিস্তান।

দেরাদুনে অনেক ‘প্রথম’ দেখা হয়ে গেল আফগানদের। রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক ম্যাচ আয়োজন করা হলো। বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো আফগানিস্তানের কাছে টি-টোয়েন্টি হারল। আজ যোগ হলো আফগানদের বিপক্ষে প্রথমবারের সিরিজ হারের লজ্জা। আর ইতিহাস গড়ে মাথা উঁচু করে মাঠ ছাড়ল আফগান খেলোয়াড়েরা। টেস্ট খেলুড়ে দলগুলোর মধ্যে জিম্বাবুয়ের বাইরে অন্য কোনো দলের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জেতার রেকর্ড ছিল না। আজ সেটি হলো। প্রথমবারের মতো আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে নেমেছিল বাংলাদেশ, সেটিতেই নিতে হলো পরাজয়ের স্বাদ। এখন তো ধবল-ধোলাইয়ের শঙ্কা!

আবারও ম্যাচের নায়ক রশিদ খান। পঞ্চম বোলার হিসেবে আক্রমণে এসেছেন ১০ ওভার পরে। আর এসেই খেলার রং বদলে দিয়েছেন। তাঁর কারণেই বাংলাদেশের পুঁজিটা ১৩৪ রানের বেশি হয়নি। আফগানিস্তানের ৬ উইকেটের দুর্দান্ত জয়ে ব্যাট হাতে অবদান থাকল মোহাম্মদ নবীর। টি-টোয়েন্টিতে ১৩৫ রান আর কী কঠিন বাধা! অথচ বোলাররা অসাধারণ বোলিং করে আশা জাগালেন। পঞ্চম ওভারের পর তো টানা ৩৫ বল আফগানিস্তানকে বাউন্ডারিই মারতে দেননি বাংলাদেশের বোলাররা। ১৮ বলে সমীকরণ দাঁড়াল ২৯ রানে। ১৮তম ওভারের শেষ বলে ৪৯ রান করা সামিউল্লাহ শেনওয়ারিকে মোসাদ্দেক ফিরলে আশাটা যেন আরেকটু উজ্জ্বল হয় বাংলাদেশের। শেষ ১২ বলে সমীকরণ নেমে আসে ২০ রানে।

আফগানিস্তান দলে একজন রশিদ খান আছেন। কিন্তু মহেন্দ্র সিং ধোনির মতো কি ফিনিশার আছে? মোহাম্মদ নবী দুর্দান্ত ফিনিশার হিসেবেই আবির্ভূত হলেন। ১৯তম ওভার করা রুবেলের ৫ বলে ২ চার আর ২ ছক্কায় ২০ রান তুলে এক ঝটকায় ম্যাচটা নিজেদের মুঠোয় পুড়ে নিলেন। ১৮টা ওভার বাংলাদেশের বোলাররা যে প্রাণপণ চেষ্টা করেছেন, সেটি নিমেষেই বৃথা হয়ে গেল ওই এক ওভারেই।

তবে আফগান ব্যাটসম্যানদের কাজটা সহজ করে দিয়েছেন রশিদ। এই লেগস্পিনার এখন বাংলাদেশের বারমুডা ট্রায়াঙ্গল। ৪ ওভারে ১২ রান দিয়ে ৪ উইকেট—রশিদ-রহস্যের সমাধান সাকিবরা শেষ ম্যাচেও করতে পারবেন? না কি ধবলধোলাইয়ের লজ্জা নিয়েই দেশে ফিরবেন!

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন