মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮ ০৬:১৬:০৮ এএম

এজলাস থেকে পালালো আসামি, কনস্টেবল বরখাস্ত

জেলার খবর | ফরিদপুর | বুধবার, ৬ জুন ২০১৮ | ০৬:৩৭:০৯ পিএম

আদালতের এজলাস থেকে হত্যা মামলার আসামি ফরিদ শেখের (২৬) পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় ফরিদপুর কোতোয়ালি থানায় মামলা হয়েছে। সেই সঙ্গে দায়িত্বে অবহেলার জন্য পুলিশ কনস্টেবল রবিউল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। ঘটনার তদন্তে গঠন করা হয়েছে তিন সদস্যের কমিটি।

গতকাল মঙ্গলবার বেলা পৌনে ১২টার দিকে ফরিদপুরের প্রথম জজ আদালতের এজলাস থেকে মামলার শুনানির পর ইজিবাইকচালক রাসেল শেখ হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি ফরিদ শেখ কৌশলে পালিয়ে যায়। ফরিদ শেখ ফরিদপুর শহরের গুহলক্ষ্মীপুর মহল্লার মো. ইসাহাক শেখের ছেলে।

কোর্ট পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, এ ঘটনায় কোর্ট পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) শহীদুল ইসলাম বাদী হয়ে গত মঙ্গলবার রাতে ফরিদপুর কোতোয়ালি থানায় ফরিদ শেখকে আসামি করে মামলা করেছেন।

এ মামলায় ফরিদ শেখের বিরুদ্ধে পুলিশের জিম্মা থেকে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে। ফরিদ শেখ পালিয়ে যাওয়ার সময় ওই এজলাসে আসামিরা কনস্টেবল রবিউল ইসলামের জিম্মায় ছিলেন। এ ঘটনার পর রবিউলকে দায়িত্বে অবহেলার জন্য সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

এ ঘটনার তদন্তে ডিএসবির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তফা কামালকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই কমিটিকে আগামী তিন কর্ম দিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক নাজনীন বেগম বলেন, তদন্তে গঠিত কমিটি বুধবার থেকেই কাজ শুরু করেছেন। আসামি ফরিদ শেখ এজলাস থেকে পালিয়ে যাওয়ার পর থেকে তাকে গ্রেফতারের জন্য বিভিন্ন সম্ভাব্য জায়গায় অভিযান চালানো হচ্ছে। কিন্তু বুধবার বিকেল ৩টা পর্যন্ত তাকে পাওয়া যায়নি।

তিনি বলেন, তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর এ ঘটনায় যাদের গাফিলতি পাওয়া যাবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন