শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮ ০৮:০৬:০২ এএম

১৪ বছরের ছাত্রীকে বিয়ে করলেন ২৮ বছর বয়সী শিক্ষক

জেলার খবর | নাটোর | বুধবার, ৬ জুন ২০১৮ | ১০:১৯:০০ পিএম

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলায় নিজ স্কুলের ১৪ বছর বয়সী অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ে করেছেন ২৮ বছর বয়সী এক স্কুলশিক্ষক।

বুধবার আনুষ্ঠানিকভাবে বালিকা বধূকে ঘরে তোলার কথা রয়েছে। রোববার মধ্যরাতে নিকট আত্মীয়দের সঙ্গে নিয়ে বিয়ের কাজ সম্পন্ন করেন তিনি। বিয়ে পড়ান ওই এলাকার কাজী মো. আলাউদ্দিন প্রামাণিক।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার দ্বারিকুশি গ্রামের আবদুর রহিম ভূঁইয়ার ছেলে সাইফুল ইসলাম (২৮) জোনাইল এমএল উচ্চ বিদ্যালয়ে খণ্ডকালীন শিক্ষক হিসেবে কর্মরত আছেন।

সম্প্রতি তিনি একই স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী রিয়া খাতুনকে বিয়ের জন্য তার বাবা পার্শ্ববর্তী চর গোবিন্দপুর গ্রামের নুরুল হোসেন নুরুর কাছে প্রস্তাব দেন। মেয়ের বাবা প্রস্তাবে রাজি হওয়ায় গত রোববার রাতে বিয়ে সম্পন্ন হয়। কনে রিয়ার অমতে জোর করে এ বিয়ে দেয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে স্কুলশিক্ষক সাইফুল ইসলাম বলেন, পছন্দ হয়েছে তাই কালেমা পড়িয়ে রেখেছি। মেয়ের বয়স ১৮ বছর হওয়ার পর ঘরে তুলে আনবো। তবে বিয়ের কিছু আনুষ্ঠানিকতা থাকে যা সমাজে করতে হয়। তাই সেটাই করেছি।

বিষয়টি স্বীকার করে ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আশিকুর জামান বলেন, এ ঘটনার পর স্কুলের সিনিয়র শিক্ষকদের ডেকে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। খণ্ডকালীন শিক্ষক সাইফুল ইসলামকে আর স্কুলে আসতে দেয়া হবে না।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন