শুক্রবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৮ ০৬:২৩:৪৮ এএম

ঈদে নৌপথে বিআইডব্লিউটিএ’র নানা উদ্যোগ

জেলার খবর | বরিশাল | শুক্রবার, ৮ জুন ২০১৮ | ১০:০৪:১৭ পিএম


বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) চেয়ারম্যান কমডোর এম. মোজাম্মেল হক বলেছেন, আসন্ন ঈদে ঢাকাসহ সারা দেশের বিভিন্ন স্থানে অবস্থারনরত ২৫ লাখ মানুষ নৌপথে বাড়ি ফিরবে। এর বেশিরভাগ যাত্রী দক্ষিণাঞ্চলমুখী। এই যাত্রীর হয়রানি এবং ভোগান্তি লাঘবে এবং তাদের যাত্রা শান্তিপূর্ণ ও নির্বিঘ্ন করতে নানা পদক্ষেপ নিয়েছে বিআইডব্লিউটিএ।

ঈদে নৌপথের প্রস্তুতি দেখতে আজ শুক্রবার দুপুরে বরিশাল নদীবন্দর পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান।

কমডোর এম. মোজাম্মেল হক বলেন, ঈদ-পূর্ব প্রস্তুতি দেখতে আজ ভোলা থেকে অভিযান শুরু হয়েছে। দেশের সবগুলো অভ্যন্তরীণ নদীবন্দর পরিদর্শন করে ছোট-খাট যেসব ত্রুটি-বিচ্যুতি পাওয়া যাচ্ছে, সেগুলো সমাধান করতে তাৎক্ষণিক স্থানীয় কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এরই ধারাবাহিকতায় আজ বরিশাল নদীবন্দর পরিদর্শনকালে বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান বলেন, এবার বর্ষা মৌসুমে ঈদ। তাই বাড়তি সতর্কতা রয়েছে কর্তৃপক্ষের। আবহাওয়া সংকেত ২ নম্বর হলে ৬৫ ফুটের কম দৈর্ঘ্যের লঞ্চ, স্পিডবোট এবং ট্রলার চলাচল বন্ধ থাকবে। আবহাওয়ার সতর্কতা সংকেত ৩ হলে সকল ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ থাকবে।

ঈদের আগের পাঁচ দিন এবং ঈদের পর সাত দিন দক্ষিণাঞ্চলের নৌপথের যাত্রীদের সুবিধার্থে বরিশাল নদীবন্দরে কন্ট্রোল রুম চালু করা হয়েছে। এবার নৌপথে অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহনরোধ এবং মাঝ নদীতে যাত্রী তোলার উপর কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। নৌপুলিশ এবং কোস্টগার্ডকে এই বিষয়ে নজরদারি করতে বলা হয়েছে।

ফিটনেস এবং সনদবিহীন লঞ্চ যাতে নদীবন্দরে নোঙর করতে না পারে সেই জন্যও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানান বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান।

পরিদর্শনকালে উপ-পরিচালক মো. রফিকুল ইসলাম, আজমল হুদা মিঠু এবং মোস্তাফিজুর রহমানসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন