বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮ ১১:১৪:১৫ এএম

শেরপুরে দুদিন ব্যাপী অসহায় রোগীদের মাঝে বিনামূল্যে চিকিৎসা ও ঔষধ বিতরণ

জাহিদুল খান সৌরভ | জেলার খবর | শেরপুর | শনিবার, ৯ জুন ২০১৮ | ০৫:০৫:০৩ পিএম

শেরপুর জেলার সদর উপজেলার পাকুড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, শিক্ষানুরাগী আলহাজ্ব মোঃ হায়দার আলীর কন্যা সদ্য এমবিবিএস পাশ করা ডাঃ হালিমা আক্তার তৃপ্তির সৌজন্য ওই ইউনিয়নের চৈতনখিলা নিজাম উদ্দিন মডেল কলেজ দিনব্যাপী দু:স্থ-অসহায় রোগীদের মাঝে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ বিতরণ করা হয়।

চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ হায়দার আলী কর্তৃক বাস্তবায়নে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা মেডিক্যাল ক্যাম্পে দিনব্যাপী ডাঃ হালিমা আক্তার তৃপ্তিসহ ১২ জন তার সহকর্মী ডাক্তারগণ ওই ইউনিয়ন সহ পাশ্ববর্তী ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রাম থেকে আসা দুঃস্থ অসহায় রোগীদের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে চিকিৎসা সেবাসহ ব্যবস্থাপত্র এবং ঔষধ দেওয়া হয়।

মেডিক্যাল ক্যাম্পে এসময় অন্যান্য চিকিৎসকদের মধ্যে চিকিৎসা প্রদান করেন, ডাঃ আস্থা দাওয়ারী (নেপাল), ডাঃ নিরঞ্জনা থাপা (নেপাল), ডাঃ সূষমা ভান্ডারী (নেপাল), ডাঃ মোহাম্মদ আলী বাবু, ডাঃ গোলাম রব্বানী, ডাঃ জুঁইপাল, ডাঃ শারমীন আক্তার তাপতী, ডাঃ সালমান রহমান ববি, ডাঃ ইফফাত আরা জুঁই, ডাঃ সোনিয়া আক্তার তুলি, ডাঃ ইশিতা জাহিদ বন্যা।

পাকুড়িয়া ইউনিয়নের চৈতনখিলা নিজাম উদ্দিন কলেজ মাঠে সকাল থেকে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা নারী পুরুষ বেশ ভীড় জমায়। এব্যাপারে আলহাজ্ব মোঃ হায়দার আলী সাংবাদিকদের জানান, তার দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিল, তার মেয়ে হালিমা আক্তার একজন ডাক্তার হয়ে দেশের মানুষের সেবা করবে এবং দেশের কল্যাণে কাজ করবে। আজ তার আশা পূরণ হয়েছে এবং এতে তিনি খুবই খুশী। এছাড়াও তিনি দুঃস্থ অসহায়দের জন্য তার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে দেড় লাখ টাকার বিনামূল্যে ঔষধ বিতরণ করেন।

অপরদিকে ডাঃ হালিমা আক্তার তৃপ্তি বলেন, তার বাবার ইচ্ছা অনুযায়ী ডাক্তারী পাশ করারপর প্রথম নিজ গ্রাম নিজ এলাকায় মানুষের মাঝে চিকিৎসা সেবা দেয়ার জন্য এসে গর্ববোধ করছে।

মেডিক্যাল ক্যাম্পে দিনব্যাপী দুই হাজার নারী পুরুষকে চিকিৎসা সেবা, ব্যবস্থাপত্র সহ ঔষধ বিতরণ করা হয়।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন