বুধবার, ১৮ জুলাই ২০১৮ ০১:২৯:০৮ এএম

‘খালেদা জিয়া এমন জায়গায় আছেন যেখানে কোনো মানুষ থাকে না’

রাজনীতি | রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮ | ০৮:২০:১৫ পিএম

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় শুধু রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে প্রণোদিত হয়েই বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে সাজা দিয়ে কারাগারে নিক্ষেপ করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি জয়নুল আবেদীন। তিনি বলেন, এই মামলায় সরকার একটি আদেশ দিয়ে একজন জাজের মাধ্যমে জাজমেন্ট দিয়েছে।

রোববার সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবন চত্বরে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম আয়োজিত অবস্থান কর্মসূচিতে এসব কথা বলেন এই আইনজীবী নেতা।

জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সভাপতি জয়নুল আবেদীন বলেন, ‘সারা দেশের মানুষ জানে খালেদা জিয়া একটি পয়সাও চুরি করেননি। আর যে জাজমেন্ট হয়েছে সেটি বুঝতে হবে। একটি দেশের সরকার প্রধান মিথ্যাভাবে বলেন, খালেদা জিয়া এতিমের টাকা চুরি করে মেরে খেয়েছেন। কিন্তু সেটি আদালতে প্রমাণিত হয়নি। তাদের অভিযোগ, খালেদা জিয়া ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন। সেটিও প্রমাণিত হয়নি, এজন্য এটি বলা যাবে না।’

খালেদা জিয়া দীর্ঘ চার মাস কারাগারে রয়েছেন উল্লেখ করে জয়নুল আবেদীন বলেন, ‘খালেদা জিয়া এমন জায়গায় আছেন সেখানে কোনো মানুষ থাকে না। সরকারের নীলনকশা খালেদা জিয়াকে জেলখানায় রেখে তারা একটি নির্বাচন করতে চায়। আমরা আইনি লড়াইয়ের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে চাই।

খালেদা জিয়া আইনগতভাবেই বেইল (জামিন) পাওয়ার অধিকারী। কিন্তু আইনগতভাবে খালেদা জিয়াকে জামিন দেওয়া হচ্ছে না। খালেদা জিয়া সরকারের কারণে বেইল পাচ্ছেন না। আমাদের দেশের সর্বোচ্চ আদালতের প্রতি একটি কথা বলতে চাই। দেশের মানুষ তাকিয়ে আছে আপনাদের প্রতি। সরকারের এজেন্ডা আপনারা ওখানে বসে বাস্তবায়ন করবেন না। সরকার চায়, খালেদা জিয়াকে দীর্ঘ দিন আটকিয়ে রাখতে। সরকার চায়, খালেদা জিয়াকে বাদ দিয়ে নির্বাচন করতে। আর আপনারা (আদালত) যদি সরকারের সেই ইচ্ছা বাস্তবায়ন করতে সহযোগিতা করেন তাহলে বিচার বিভাগের ওপর সারা দেশের মানুষের আস্থা থাকবে না। আমাদের আইনজীবীদেরও আস্থা থাকবে না। দেশের সর্বোচ্চ আদালতের প্রতি আমাদের অনুরোধ অন্যান্য মানুষ যেভাবে বিচার পায় খালেদা জিয়াকেও সেই দৃষ্টিকোণ থেকে দেখে আপনারা বিচার কার্য পরিচালনা করুন। যদি সেটা করেন তাহলে খালেদা জিয়া মুক্ত হতে পারবেন।’

এই আইনজীবী নেতা আদালতের উদ্দেশে আরো বলেন, ‘দেশের সর্বোচ্চ আদালতের আইনজীবী সমিতির সভাপতি হিসেবে অমি আপনাদের প্রতি বিনয়ের সঙ্গে বলতে চাই, আপনারা দয়া করে নিরপেক্ষভাবে বিচার করুন। কালো কোটকে ক্ষেপাবেন না। আইনজীবীরা যদি রাস্তায় নামে তাহলে আপনাদের জনগণের কাঁঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে।’

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদল, ব্যারিস্টার কায়সার কামাল, অ্যাডভোকেট আবেদ রেজা, অ্যাডভোকেট সিমকী ইমাম খান, রাশিদা আলিম ঐশী, সালমা ইসলাম সোমা প্রমুখ।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন