সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ০৯:৩৮:৪৮ এএম

ব্রাজিল শুধু ফুটবল খেলে না, শেখায়ও!

কায়সার হামিদের কলাম | খেলাধুলা | শুক্রবার, ২৯ জুন ২০১৮ | ০৪:৩৩:৩২ পিএম

ব্রাজিল শুধু ফুটবল খেলে না, শেখায়ও। লাতিন ফুটবলের সুরভি ছড়াচ্ছে তারা। আবার কৌশলী ফুটবল কীভাবে খেলতে হয়, তা-ও দেখাচ্ছেন নেইমাররা।

প্রথম গোল হজমের পর সার্বিয়া গোল শোধের জন্য গতিময় ফুটবল খেলেছে। কিন্তু খেলাটা মন্থর করে ব্রাজিল। নেইমার যেন হেঁটে হেঁটে খেলছিলেন।

আসলে তারা জানেন কখন কীভাবে খেলতে হয়। নেইমারের পায়ের কিছু সূক্ষ্ম কৌশল দেখেছেন দর্শকরা। বল রিসিভিং, কন্ট্রোল সবই দেখালেন। মার্সেলোর পরিবর্তে নেমে অসাধারণ খেলেছেন ফিলিপ লুইস। লাতিন আমেরিকার দেশটিতে প্রতিভার ছড়াছড়ি।

কারোর চেয়ে কেউ কম নন, বুঝিয়ে দিলেন লুইস। ব্রাজিলের সাইড বেঞ্চেও যে খুব ভালো ফুটবলার রয়েছেন, তার প্রমাণ লুইস। যে কোনো সময় যে কেউ জ্বলে উঠতে পারেন।

বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে হারিয়ে বিশ্বকাপে ইতিহাস সৃষ্টি করেছে দক্ষিণ কোরিয়া। এবারের বিশ্বকাপে এটাই বড় অঘটন। কীভাবে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের ঘোল খাওয়াতে হয় তা দেখিয়েছে এশিয়ার দেশটি। র‌্যাংকিংয়ের ৫৭ নম্বর দল শীর্ষে থাকা দলটিকে নাকানি-চুবানি খাইয়েছে।

১৯৯৮ বিশ্বকাপ জেতা ফ্রান্স পরের আসরে গ্রুপপর্ব থেকে বাদ পড়েছিল। ২০০২ সালে ব্রাজিল বিশ্বকাপ জিতলেও পরের আসরে নকআউট পর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছিল।

২০০৬-এর চ্যাম্পিয়ন ইতালি পরের আসরে গ্রুপপর্ব থেকে, ২০১০ চ্যাম্পিয়ন স্পেন পরের আসরে এবং ২০১৪-র শিরোপাজয়ী জার্মানিও গ্রুপপর্ব থেকে বিদায় নিল।

রাশিয়ায় টনি ক্রুসরা ভালো খেলতে পারেননি। ওপেন নেটে সুযোগ নষ্ট করেছেন মেসুত ওজিল। টনি ক্রুসও ছিলেন নিষ্প্রভ।

দ্বিতীয় রাউন্ডের জন্য জয় প্রয়োজন ছিল সুইডেনের। সময় মতো জ্বলে উঠেছেন অগাস্টিনসন, গ্রাকভিস্ট ও আলভারেজ। এই তিনজনের গোলে শেষ ষোলো নিশ্চিত করে ইউরোপের দেশ। মেক্সিকো জিতলে সুযোগ থাকত দক্ষিণ কোরিয়ারও। তখন গোলপার্থক্য দেখা হতো।

শেষটায় অসাধারণ খেলে এশিয়াকেও রাঙিয়ে দিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া। চার পয়েন্ট নিয়ে আগেই পরের রাউন্ড নিশ্চিত করেছে সুইজারল্যান্ড।

ভালো খেলে ইউরোপের দেশটিকে রুখে দিয়ে সান্ত্বনার এক পয়েন্ট নিয়ে ফিরে যাচ্ছে কোস্টারিকা।

-দৈনিক যুগান্তর।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন