বুধবার, ১৮ জুলাই ২০১৮ ০১:১৫:৩৪ এএম

টাইগারদের একের পর এক আক্রমনে ব্যাটিং বিপর্যয়ে উইন্ডিজ

খেলাধুলা | শনিবার, ৩০ জুন ২০১৮ | ১১:১৮:০০ এএম

টাইগারদের একের পর এক আক্রমনে ব্যাটিং বিপর্যয়ে উইন্ডিজ । উইন্ডিজ সফরের একমাত্র দুইদিনের প্রস্তুতি ম্যাচে তামিম-রিয়াদদের ব্যাটিং দৃঢ়তার পর বোলিংয়েও দারুণ শুরু পেয়েছে সফরকারী বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের করা ৪০৩ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে দিনের শুরুতেই টাইগার বোলারদের বোলিং তোপে পড়ে স্বাগতিকরা। দলীয় ৪ রানের মধ্যেই দুই উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ের শঙ্কায় থাকা উইন্ডিজকে বিপর্যয় এড়াতে প্রাণপনে লড়ে যান উইন্ডিজের ক্রিকেটার কিংবদন্তি শিবনারায়ন চন্দরপলের ছেলে ত্যাগনারায়ন চন্দরপল ও অধিনায়ক শামার ব্রুকস।

তৃতীয় উইকেট জুটিতে দুজনে মিলে ৫০ রান যোগ করে লড়াইয়ে স্বাগতিকদের ফেরানোর আভাস দিলেও কামরুল ইসলাম রাব্বির দুর্দান্ত বোলিংয়ে এ যাত্রায় স্বপ্ন ভেস্তে যায় স্বাগতিকদের। আক্রমণে এসে ২৮ রান করা ত্যাগনারায়নকে সরাসরি বোল্ড করে সাজঘরে ফেরালে দলীয় ৫৫ রানে তিন নম্বর উইকেটের পতন ঘটে উইন্ডিজ একাদশের।

আর এতে বিচ্ছিন্ন হয় চন্দরপল ও ব্রুকসের মধ্যকার মূল্যবান ৫১ রানের জুটির। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৩ উইকেট হারিয়ে উইন্ডিজ দলের রান ৬৪।

বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে আবু জায়েদ রাহী, রুবেল হোসেন ও কামরুল ইসলাম রাব্বি প্রত্যেকেই শিকার করেছেন একটি করে উইকেট।

এর আগে প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথম দিনে দারুণ অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হয় বাংলাদেশ। ইনিংসের শুরুতে ব্যাটিং বিপর্যয় সত্ত্বেও দিন শেষে রান পাহাড়ে চড়েছে দলটি। তামিম ইকবাল ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দুর্দান্ত শতকের সাথে সাকিবের অর্ধশতক দিন শেষে বাংলাদেশের স্কোরবোর্ডে যোগ করেছে ৮ উইকেটে ৪০৩ রান।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১২৫ রান আসে তামিমের ব্যাট থেকে। টাইগার ওপেনারের দেখানো পথে হেঁটে রিয়াদও শতক হাঁকিয়ে মাঠ ছাড়েন ব্যক্তিগত ১০২ রানে। সতীর্থদের ব্যাট করার সুযোগ করে দেওয়ার দিন দলের হয়ে গুরুত্বপূর্ণ ৬৭ রানের ইনিংস খেলেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। তাছাড়া ৪০ রান আসে সাত নম্বরে ব্যাট করতে নামা ইমরুল কায়েসের ব্যাট থেকে।

উইন্ডিজ বোলারদের মধ্যে জোসেফ ৫৩ রানের বিনিময়ে ৪টি, হার্ডিং ও রোমারিও প্রত্যেকেই একটি করে উইকেট লাভ করেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ডঃ
প্রথম ইনিংসে
বাংলাদেশ ৪০৩/৮ (৮৪.২ ওভার)
তামিম ১২৫, লিটন ২, মুমিনুল ৭, শান্ত ৪, সাকিব ৬৭, মাহমুদউল্লাহ ১০১, সোহান ১, মিরাজ ২৮, ইমরুল ৪০, তাইজুল ৯*, রাব্বি ০, জোসেফ ৫৩/৪, রোমারলো ৬৭/১, হার্ডিং ৯২/১

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন