বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ ০২:১১:২৩ এএম

সমস্যার নাম দুই ও তিন নম্বর পজিশন!

খেলাধুলা | বুধবার, ২৫ জুলাই ২০১৮ | ১০:৩৬:৫২ পিএম

ওয়ানডে ফরম্যাটে তিন নম্বর পজিশনে এখন পর্যন্ত সফল সাকিব আল হাসান। তামিম ইকবালের সাথে এখন পর্যন্ত বেশ কয়েকটি স্মরণীয় জুটি গড়েছেন তিনি। দলের বিপদে তিন নম্বরে ব্যাট করতে হচ্ছে তাকে।

সমস্যার নাম দুই ও তিন নম্বর পজিশন! ব্যাট হাতে গুরু দায়িত্ব নেয়ার সাথে বল হাতেও দায়িত্ব পালন করতে হয় তাকে। তাই এখন পর্যন্ত এই পজিশনে সফল সাকিব আল হাসানকেই তিন নম্বরে দেখতে না প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু।

তার ভাষায়, 'আমাদের কাছে বিশ্বের এক নম্বর অলরাউন্ডার আছে। সে যে কোন জায়গায় ব্যাট করার ক্ষেত্রে আত্মবিশ্বাসী ও সবচেয়ে অভিজ্ঞ ক্রিকেটার সে। তিনে ব্যাট করার ক্ষেত্রে সে যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী, যার কারনে প্রথম ওয়ানডেতে তিন নম্বরে ব্যাট করেছে এবং দায়িত্ব নিয়ে খেলেছে। যদি ক্রিকেটার নিজে আত্মবিশ্বাসী থাকে তাহলে আমার মনে এভাবেই চালিয়ে যাওয়া উচিত।'

তবে সাকিব আল হাসানে দীর্ঘমেয়াদে সমস্যার সমাধান দেখছেন না আরেক নির্বাচক হাবিবুল বাশার। তিন নম্বরে বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যানকে দেখতে চান তিনি। তার ভাষায়, 'ওপেনিং ও তিন নম্বর পজিশন এই দুইটিই কিন্তু স্পেশালাইজড পজিশন। এই দুই জায়গায় দলে সেরা ব্যাটসম্যান ব্যাট করে। বাকী জায়গা গুলোতে আপনি আপনি উঠানামা করতে পারেন। আমরা দুই ও তিন নম্বর পজিশন নিয়ে অনেক দিন ধরে ভুগছি।

এক নম্বর নিয়ে আমাদের সমস্যা নেই। বাকী দুই জায়গার সমাধান করতে পারছি না এখনো, আমরা চেষ্টা করছি। কোন একজনকে তো দায়িত্ব নিতে হবে। এখানে যারা ব্যাট করে তাদের কাছে লম্বা ইনিংসের প্রত্যাশা থাকে দলের। তার কাজ শুধু ব্যাটিং করা, কেন পারছে না সেটা বলতে পারছি না। আমাদের ওয়ানডেতে ভবিষ্যতে ধারাবাহিকভাবে ভালো করতে হলে এই জায়গা স্থায়ী সমাধান দরকার। বার বার পরিবর্তন করা দলের জন্য ভালো কিছু হয় না।'

বিশেষ করে ওপেনিংয়ে তামিম ইকবালের সঙ্গী হিসেবে নতুন কাউকে দেখতে চান না তিনি। দলে থাকা ওপেনাররাই তাদের জায়গা নিশ্চিত করুক, এমনটাই প্রত্যাশা বাশারের। তার বক্তব্য, 'আরও দুটি ওয়ানডে ম্যাচ বাকী আছে। আমরা চাই না নতুন কাউকে দেখতে। অবশ্যই চাইব যাদের দলে নেয়া হয়েছে তারাই পারফর্ম করুক। প্রতিবার নতুন কাউকে নিলে এটা তামিমের জন্যও অস্বস্তিকর। এটা একটা পার্টনারশিপের মত। বড় দল গুলো দেখেন, হেইডেন-ল্যাঙ্গার যেমন ছিলেন, সব দলেই এমন একটা জুটি কাজ করেছে। তাই তামিমের জন্য বিষয়টা কঠিন হয়, প্রতি সফরেই নতুন কারো সাথে ব্যাট করা, নতুন করে মানিয়ে নেয়া। আমি আশা করি এমন হবে না। তাহলে বিশ্বকাপের আগে আমরা স্থায়ী একটা ওপেনিং জুটি ও তিন নম্বর ব্যাটসম্যান পেতে পারব।'

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন