বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮ ০১:২০:৫৪ পিএম

ছাত্রলীগ কেন ‘হাতুড়ি’ দিয়ে মারছে?

রাজনীতি | শুক্রবার, ২৭ জুলাই ২০১৮ | ০৮:০১:১৭ পিএম

ছবিঃ সংগৃহীত

‘ছাত্রলীগ কেন হাতুড়ি দিয়ে মারছে? ছাত্রলীগ কেন মিছিলের মধ্যে মারামারি করছে? পুলিশ কেন এদের বাবা-মাকে ধরে নিয়ে যাচ্ছে কানেকশন ধরার জন্য? মেয়েদেরকে কেন রাতের বেলা হল থেকে বের করে দেয়া হয়েছে?’

‘এটা বাংলাদেশ, ১৬ কোটি মানুষের জায়গা। এখানে বিরোধী দল সুযোগ নিতে চাইবে। সুযোগ নিলে আপনারা ষড়যন্ত্র বলবেন? ভিসির বাড়ি যারা ভাঙচুর করেছে, এটা অবশ্যই অন্যায় হয়েছে। তাদের খুঁজে বের করুন। কিন্তু একটা জিনিস দিয়েতো আরেকটা জিনিস জাস্টিফাই করতে পারবেন না।’

সম্প্রতি একটি বেসরকারি টেলিভিশনের সরাসরি টক-শো অনুষ্ঠানে এসে কোটা সংস্কার আন্দোলন ইস্যুতে বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির (বিজেপি) চেয়ারম্যান আন্দালিব রহমান পার্থ এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘২০১৪ সালে কোনো ছেলে ফেসবুকে যদি দিয়ে থাকে, হেফাজতের ওপর এভাবে গুলি চালানো ঠিক হয়নি, তার মানে সে হেফাজত হয়ে গেল? সে কোটার ব্যাপারে কথা বলতে পারবে না? সে জামায়াতে ইসলাম হয়ে গেল? এভাবে করে দেখা কোনোভাবেই উচিৎ নয়।’

আওয়ামী লীগ প্রত্যেকটা সমস্যা রাজনৈতিকভাবে মোকাবেলা করা বন্ধ করে দিয়েছে দাবি করে পার্থ বলেন, ‘আওয়ামী লীগ পুলিশ দিয়ে হ্যান্ডেল করে। আওয়ামী লীগ সরকারের উচিৎ ছিল তাদের তরুণ রাজনীতিবিদদের দিয়ে এদের সাথে দফায় দফায় কথা বলা। এই ছেলেগুলো কিন্তু গণজাগরণ মঞ্চেও ছিল, সরকারের অনেক দাবির পক্ষেও ছিল। তখন কিন্তু তাদেরকে কোনো নাম দেয়া হয়নি। এরা অনেকেই গ্রামের ছেলে, এদেরকে রিমান্ডে দেয়া হচ্ছে। তাদের সাথে কথা বলা দরকার।’

‘হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে, এভাবে হেনস্থা করে আপনি ছাত্রলীগকে লেলিয়ে দিয়ে এটা কি রাজনৈতিক কোনো সমাধান? সরকার যদি ইচ্ছে করে, কোটার জিনিসটা অনেক সুন্দর করে, রাজনৈতিকভাবেই সমাধান করতে পারে। আমি এখনও মনে করি, কোনো এজেন্সি, পুলিশ দিয়ে রাজনৈতিক সমস্যা সমাধান করা সম্ভব না। যদি করতে যান তাহলে এটার ফলাফল ভাল হয় না।’

তিনি বলেন, ‘ছেলেগুলি বাংলাদেশের। তারা কোনো না কোনো রাজনৈতিক দল করতে পারে, কে কোন দল করে সেগুলো যাচাই করাটাও রং দিকে নিয়ে যাওয়া। এই মুহূর্তে কে হেফাজত সেটা খোঁজার দরকার নেই, দল করতেই পারে। এদেশে কেউ কোনো দল করাটা সমস্যার বিষয় নয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘ভিসির বাড়িতে কারা এ কাজ করেছে, তাদের খুঁজে বের করতে হবে। এ ছেলেগুলোর দাবি তরুণ রাজনীতিবিদদের দিয়ে, দরকার হলে সর্বদলীয়ভাবে এটা সমাধান করা উচিৎ।’

বিএনপি এ আন্দোলনে পূর্ণ সমর্থন দিয়েছে। কিন্তু দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকলেও বিএনপি কেন এটার বিষয়ে কিছু করেনি, এমন প্রশ্নের জবাবে চেয়ারম্যান আন্দালিব রহমান পার্থ বলেন, ‘সে সময় এটা ইস্যু ছিল না।’

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন