শুক্রবার, ১৭ আগস্ট ২০১৮ ১১:৪৯:৫৯ এএম

সিটি নির্বাচন: ভোট কেন্দ্রে তালা, চলছে গোলাগুলি!

রাজনীতি | সোমবার, ৩০ জুলাই ২০১৮ | ০১:২৮:৩৩ পিএম

সিলেট এমসি কলেজ কেন্দ্রের ফটকে তালা

সিলেট পাঠানটুলা জামেয়া কেন্দ্র পুলিশের সহায়তায় দখল করে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছাত্রশিবিরের কর্মীরা নগরীতে বিক্ষোভ শুরু করে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কয়েক রাউন্ড গুলি ছোঁড়ে।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ২৬ নম্বর ওয়ার্ড কদমতলী স্কুল সেন্টার এলাকায় দফায় দফায় সংঘর্ষ চলছে।

অন্যদিকে সিলেট এমসি কলেজ ক্যাম্পাসের ভোট কেন্দ্রের মূল ফটকে তালা দেখা গেছে। এ কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতিও কম। আর নারী ভোটারদের বুথ প্রায় ফাঁকা। বুথগু‌লো‌তে নৌকা প্রতীক ছাড়া অন্য প্রার্থী‌দের কোনো এজেন্টও দেখা যায়নি। অন্যদিকে কক্ষ থে‌কে সাংবা‌দিক‌দের ‌বের ক‌রে দিয়েছেন প্রিসাই‌ডিং অফিসার। ভোট সংশ্লিষ্ট তথ্য দি‌তেও অস্বীকার করেছেন কে‌ন্দ্রের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তারা।

বেলা সোয়া ১০টার দি‌কে সি‌লে‌টের এম‌সি ক‌লে‌জ ক্যাম্পা‌সে অব‌স্থিত কেন্দ্র প‌রিদর্শ‌নে গি‌য়ে প্রিসাইডিং অফিসারের রু‌মে প্র‌বেশ ক‌রলে দা‌য়িত্বরত কর্মকর্তা কক্ষ থে‌কে বে‌রি‌য়ে যে‌তে ব‌লেন। সাংবা‌দিক প‌রিচয় দি‌লে তি‌নি কক্ষের সাম‌নে দা‌য়িত্বপালনরত আনসার‌দের ডা‌কেন এবং সাংবাদিক কিভাবে প্রবেশ করলো বলে তাদের ধমকান।

এসময় প্রিসাইডিং অফিসারের পা‌শে বসে থাকা পু‌লিশ কর্মকর্তা ব‌লেন, কি জান‌তে চান ব‌লেন। এ সময় কেন্দ্রে ভোটার সংখ্যা কতো জান‌তে চাইলে পু‌লিশ কর্মকর্তা ব‌লেন, ২০০২৩ ভোট। এরপর তি‌নি বে‌রি‌য়ে গে‌লে আনসার সদস্যরা এ প্র‌তি‌বেদক‌কেও বের ক‌রে দেন।

স‌রেজ‌মি‌নে দেখা যায়, এম‌সি ক‌লে‌জে অব‌স্থিত কেন্দ্র‌টি‌তে ৭টি পুরুষ বুথ ও চার‌টি ম‌হিলা বুথ আ‌ছে। পুরুষ বুথগু‌লো‌তে কিছু ভোটার দেখা গে‌লেও নারী ভোটারদের উপ‌স্থি‌তি অনেক কম। দুই‌টি বু‌থে ক‌য়েকজন নারী ভোটার দেখা গে‌লেও অন্য দুই বুথ ফাঁকা। নারী ও পুরুষ কোনো বু‌থেই নৌকা ছাড়া অন্য প্রার্থী‌দের এজেন্ট দেখা যায়‌নি।

এদিকে সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নেতাদের নেতৃত্বে কেন্দ্র দখল করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী। তিনি বলেন, পুলিশের সহযোগিতায় আগ্নেয়াস্ত্র, দা নিয়ে কেন্দ্র দখল করা হচ্ছে।

সোমবার বেলা সোয়া ১১টায় নগরীর রায়নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের সামনে এ অভিযোগ করেন আরিফুল হক চৌধুরী।

এ সময় রায়নগর কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ বন্ধ ছিলো।

আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, সরকার দলের সমর্থকরা সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কেন্দ্র দখলের চেষ্টা করে। খবর পেয়ে তিনি কেন্দ্রে যান। এ সময় ৩টি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

তিনি বলেন, উত্তেজনাকর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ গুলি ছোঁড়ে তার কর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। কিন্তু কেন্দ্র দখলকারিদের কিছুই বলেনি।

জানা গেছে, সাড়ে ১০টার দিকে একদল যুবক রায়নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা করার চেষ্টা করলে পুলিশ তাদের প্রতিহত করে। এ সময় কয়েক রাউন্ড গুলি ছোঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে বলে জানিয়েছেন কতোয়ালি থানার ওসি মোশাররফ হোসেন।

তিনি জানান, কিছু সময়ের জন্য ভোটগ্রহণ বন্ধ রয়েছে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন